সংবাদদাতা:
পিতার হত্যা মামলার আসামী হয়েও সম্প্রতি সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত আঁধারঘোনার মিজানের পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন কালারমারছড়া ইউপি চেয়ারম্যান তারেক শরীফ। এর অংশ হিসেবে তিনি নিহত মিজানের জন্য মিলাদ মাহফিল, মেজবান আয়োজনে সহযোগিতা দিয়ে পাশে দাঁড়িয়েছেন। অশান্ত কালামারছাড়য় শান্তি-শৃঙ্খলা ফিরে আনতে তার এই উদ্যোগ ও প্রচেষ্টা বলে জানিয়েছেন তিনি। তাঁর মহানুভবতায় সাধারণ মানুষ অভিভূত হয়েছেন। এই জন্য তার প্রশংসা করছেন সকলেই।

জানা যায়, কয়েকদিন আগে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত আঁধারঘোনার মিজান ছিলেন কালারমারছড়ার সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা ওসমান গণির হত্যার মামলার এজাহার নামীয় আসামী। কথিত আছে, চেয়ারম্যান ওসমান গণি হত্যার সরাসরি জড়িত ছিলো মিজান। কিন্তু মিজান নিহত হলে সব ভুলে তার পরিবারের পাশে দাঁড়িয়ে মিলাদ মাহফিল, মেজবান আয়োজনে সর্বাত্মক সহযোগিতা করেছেন চেংয়ারম্যান তারেক শরীফ।

এ প্রসঙ্গে ইউপি চেয়ারম্যান তারেক বিন ওসমান শরীফ জানান, নিহত মিজান আমার পিতা শহীদ ওসমান চেয়ারম্যান হত্যা মামলার আসামী হলেও এলাকার শান্তি শৃঙ্খলার কথা বিবেচনা করে আমি নিহত মিজানের পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছি এবং তার পরিবারের দায়িত্ব নিয়েছি।

তার এ উদ্যোগ দেখে এলাকাবাসীসহ বিভিন্ন মহল শহীদ ওসমান চেয়ারম্যানের কনিষ্ঠ পুত্র কালারমারছড়া ইউনিয়ন পরিষদের জনপ্রিয় চেয়ারম্যান তারেক বিন ওসমান শরীফকে ধন্যবাদ জানান।

কালারমারছড়ার লোকজন জানান, পিতার হত্যা মামলার আসামী নিহত মিজানের পাশে তার পুত্র তারেক চেয়ারম্যান দাঁড়াবে কালারমারছড়াবাসী কোন দিন কল্পনাও করেনি। কিন্তু এই অবিশাস্য কাজটি করে তারেক চেয়ারম্যান সত্যিই মানবতার পরিচয় দিয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •