বিদেশ ডেস্ক:

তুরস্কের সিরিয়া সীমান্ত এলাকা থেকে কুর্দি বিদ্রোহীদের সরে যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ান। রবিবার ইস্তানবুলে ধূমপানবিরোধী এক অনুষ্ঠানে দেওয়া বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে তুরস্কভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আনাদোলু এজেন্সি।
রজব তাইয়্যেব এরদোয়ান
এরদোয়ান বলেন, আঙ্কারার প্রত্যাশা উত্তর সিরিয়া থেকে যুক্তরাষ্ট্র ওয়াইপিজি/পিকেকে সন্ত্রাসীদের সরিয়ে নেবে। অন্যথায় তুরস্ক ফের অভিযান শুরু করবে।

তিনি বলেন, আশা করি আমাদের আমেরিকার মিত্ররা এবার তাদের প্রতিশ্রুতি রক্ষা করবে।

এরদোয়ান বলেন, তুর্কি অভিযানে সিরিয়ায় ৭৬৫ ওয়াইপিজি/পিকেকে সন্ত্রাসীকে নিবৃত্ত করা হয়েছে। সন্ত্রাসীদের কবল থেকে দেড় হাজার বর্গকিলোমিটার এলাকা উদ্ধার করা হয়েছে।

এদিকে সিরীয় কুর্দিদের একজন সিনিয়র কর্মকর্তা জানিয়েছেন, তুর্কি-সিরিয়া সীমান্ত থেকে পিছু হটতে তারা রাজি আছেন, যদি তুরস্ক তাদের সেনা ও বেসামরিকদের দখলকৃত শহর থেকে চলে যাওয়ার অনুমতি দেয়। যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতায় তুরস্কের সঙ্গে সমঝোতার আলোকে এ কথা জানালো কুর্দিরা। এই প্রথম কুর্দিদের পক্ষ থেকে প্রকাশ্যে সীমান্তবর্তী অঞ্চল থেকে সরে যেতে সম্মতির কথা জানানো হলো। তারা জানিয়েছে, বিষয়টি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনা করা হয়েছে।

২০১৯ সালের ৯ অক্টোবর তুর্কি সীমান্তবর্তী সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় এলাকা থেকে সিরিয়ার কুর্দি বিদ্রোহীদের উৎখাতে অভিযান শুরু করে তুরস্ক। পরে ওয়াশিংটনের মধ্যস্থতায় গত ১৭ অক্টোবর ৫ দিনের যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হয় আঙ্কারা।

সিরিয়ার এসডিএফ যোদ্ধাদের বেশিরভাগই কুর্দিদের পিপলস প্রটেকশন ইউনিটস (ওয়াইপিজি)-এর সদস্য। ওয়াইপিজিকে তুরস্ক তাদের দেশে নিষিদ্ধ ঘোষিত কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টির (পিকেকে) শাখা হিসেবে মনে করে। এসডিএফ কর্মকর্তা খলিল জানান, তাদের বাহিনী সীমান্ত থেকে ৩০ কিলোমিটার ভেতরে সরে যাবে। এরপর তারা রাস আল-আইন ও তাল আবিয়াদ শহর থেকে ১২০ কিলোমিটার দূরে অবস্থান নেবে। সূত্র: আনাদোলু এজেন্সি, আল জাজিরা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •