সাদা ঘোড়ায় ছুটে কী বার্তা দিলেন কিম?

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ পিকতু আরোহণ করেছেন দেশটির সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন। সাদা ঘোড়ায় চড়ে তার ছুটে বেড়ানোর বিষয়টিকে নতুন কোনো ঘটনার ইঙ্গিত বলে ধারণা করছেন বিশ্লেষকরা।

উত্তর কোরিয়ার বরফ আচ্ছাদিত সর্বোচ্চ পাহাড় মাউন্ট পিকতুতে কিমের ঘোড়ায় চড়ে ঘুরে বেড়ানোর বেশকিছু ছবি প্রকাশ করেছে দেশটির বার্তা সংস্থা কেসিএনএ।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কিমের ঘোড়ায় চড়ে ঘুরে বেড়ানোর দৃশ্য দেখে সমালোচকেরা বলছেন, বিশ্বের নজর কাড়তেই এটা করতে পারেন তিনি। যদিও আগেও ২ হাজার ৭৫০ মিটার উচ্চতার এই পাহাড়ে আরোহণ করেছিলেন কিম। তার সেই ছবিগুলোও প্রকাশ হয়েছিল।

পিকতু পাহাড়টি উত্তর কোরিয়ার বিশেষ প্রতীক হিসেবে বিবেচনা করা হয়। পাহাড়ের এই অঞ্চলটি কিম জং-উনের বাবার জন্মস্থান হিসেবে খ্যাত।

কেসিএনএর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পিকতু পর্বতে ঘোড়ায় চড়ে কিমের ঘুড়ে বেড়ানো কোরীয় বিপ্লব ইতিহাসের এক অন্যরকম গুরুত্ব বহন করে। পিকতুর ওপর ঘোড়ায় বসে দেশকে আস্থার সঙ্গে সবচেয়ে শক্তিশালী হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে কঠোর সংগ্রামের পথ পাড়ি দেয়ার কথা গভীরভাবে স্মরণ করেছেন তিনি। পিকতুর মতো কিমও অবিচল থাকবেন।

কমপক্ষে তিনবার মাউন্ট পিকতুতে আরোহণ করেছেন কিম। গত বছর তিনি দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জা ইনের সঙ্গে পাহাড়টি পরিদর্শন করেছিলেন। তবে প্রতিবারেই কোনো গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণের আগে এই কাজ করেন তিনি।

জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণের কয়েক সপ্তাহ আগে ২০১৭ সালেও এই পর্বত পরিদর্শনে করেছিলেন কিম। ওই ভাষণে তিনি দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে কূটনৈতিক যোগাযোগ স্থাপনের ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। বিশ্লেষকরা বলছেন, পিকতুতে কিমের ঘোড়ায় চড়ে বেড়ানোর ঘটনাটি পরমাণু শক্তিধর উত্তর কোরিয়ার নতুন নীতির আভাস দিচ্ছে।

তবে কিমের আগেও আরেক বিশ্ব নেতা ঘোড়ায় চড়ে এমন ছবি দিয়েছেন। এর আগে ঘোড়ায় চড়া ছবি দিয়েছিলেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

পিকতু একটি জীবন্ত আগ্নেয়গিরি। চার হাজারের চেয়েও বেশি বছর আগে প্রথম কোরীয় রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা ডানগুনের জন্মস্থান বলা হয় এটিকে। পর্বতটি উত্তর কোরিয়ার রাজধানী পিয়ংইয়ং থেকে ৩৮৫ কিলোমিটার দূরে। এটির অবস্থান উত্তর কোরিয়া এবং চীনের সীমান্তের ডান দিকে।

সর্বশেষ সংবাদ

ইয়্যুথ এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রামের অভিজ্ঞতার আলোকে কমিউনিটি ইভেন্ট

গর্জনিয়ার কৃষকদের কাছ থেকে কচ্ছপিয়ায় চাঁদাবাজি : প্রশাসনের হস্তক্ষেপ জরুরি

সুগন্ধা পয়েন্টে ৩০ টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ, ৩ জনকে জরিমানা

টেকনাফে ছোট ভাইয়ের হামলায় বড় ভাই রক্তাক্ত

প্রাইমারির সব কমিটি মেয়াদ পর্যন্ত বহাল থাকবে, উদ্বিগ্ন হতে হবেনা

কক্সবাজার ডায়াবেটিক হাসপাতালে বিনামূল্যে চিকিৎসা বৃহস্পতিবার

আলো ছড়াচ্ছে মসজিদ ভিত্তিক শিশু-গনশিক্ষা কার্যক্রম

কচ্ছপিয়া কে.জি স্কুলে অভিভাবক সমাবেশ এবং পিইসি পরীক্ষার্থীদের দোয়া

বেগম জিয়ার মুক্তির মধ্য দিয়েই দেশে গণতন্ত্র ফিরে আসবে -লুৎফুর রহমান কাজল

প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে হাজী জসিমের প্রতিবাদ

গর্জনিয়ার পোয়াংগেরখিল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিদায় ও দোয়া অনুষ্ঠান

লামায় গলায় ফাঁস লাগিয়ে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা

লামায় নুনারঝিরি বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পিএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায়

চকরিয়া উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা

কক্সবাজার পৌরসভার কাউন্সিলর ইয়াসমিন বিভাগীয় জয়িতা হলেন

বাহারছড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সম্মেলন স্থগিত

গাজায় ইসরায়েলি বিমান হামলায় নিহত কমপক্ষে ২২ ফিলিস্তিনি

বালতি বালকের জীবনবৃত্তান্ত!

গণপূর্ত বিভাগের কর্মকর্তা কর্তৃক দোকানদার নারীকে হেনস্থার অভিযোগ

সন্দ্বীপের ভৌগোলিক অবস্থান : অতঃপর ঠেংগারচর সন্দ্বীপের অংশ