সংবাদ বিজ্ঞপ্তিঃ

কক্সবাজারে প্রথম আলোর প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান প্রথমা’র ৬দিন ব্যাপী বইমেলা মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) থেকে শুরু হয়েছে।
বিকাল পাঁচটায় শহরের ইনস্টিটিউট ও পাবলিক লাইব্রেরি (শহীদ দৌলত ময়দান) মিলনায়তনে বইমেলার উদ্বোধন করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. আশরাফুল আফসার। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান, কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহের, কক্সবাজার শিল্পকলা একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক বিশ্বজিত পাল বিশু। মেলা চলবে আগামী ২০ অক্টোবর রাত ৯ টা পর্যন্ত। প্রতিদিন বেলা ১১টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত।
অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আশরাফুল আফসার বলেন, বই ছাড়া মানুষ অচল। বই মনের খোরাক জোগায়। তাই সবাইকে বেশেবেশি করে বই পড়তে হবে। ঘরে ঘরে গড়ে তুলতে হবে লাইব্রেরী। তিনি বলেন, পর্যটন নগরী কক্সবাজারের মানুষের মনের খোরাক জোগাতে প্রথমার এই বই মেলা ভুমিকা রাখবে। বইমেলা ঘুরে ঘুরে ভালো লেখকের বই সংগ্রহ করতে তিনি উপস্থিত শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের প্রতি অনুরোধ জানান। তিনি নিজে একটি বই কিনে মেলার উদ্বোধন করেন।
জ্ঞানের জন্য বইয়ের প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরে পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান বলেন, ফেসবুকের এ যুগে তরুণ প্রজন্ম বই পড়া ভুলেই যাচ্ছে। পৌরসভার নানা কর্মকান্ডে শত ব্যস্থতার মধ্যেও তিনি নিয়মিত বই পড়েন জানিয়ে মেয়র মুজিবুর রহমান বলেন, সমাজ থেকে মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ ও অপশক্তি দূর করতে হলে প্রকৃত শিক্ষার প্রয়োজন। এজন্য বেশি বেশি বই পড়তে হবে। সম্মৃদ্ধ সমাজ গড়তে বই পড়ার বিকল্প নেই। তিনি মেলা থেকে ৫০ হাজার টাকার বই কেনার ঘোষণা দেন।
কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহের বলেন, মানুষর জীবনে তিন জিনিষ খুবই প্রয়োজন। আর তা হচ্ছে বই, বই আর বই। সম্প্রতি ফেসবুকসহ নানা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কারণে বই পড়ার হার কমছে। যা উদ্বেগজনক। জ্ঞানের ভান্ডার সম্মৃদ্ধ করতে শিক্ষার্থীদের বেশি বেশি করে বই পড়ার তাগিদ দেন তিনি ।
বিশেষ অতিথি বিশ্বজিত পাল বিশু বলেন, সুন্দর সমাজ বিনির্মান ও মেধার বিকাশে প্রথম আলো বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে আসছে। এ জনপদে প্রথমার বাইমেলা দিয়ে আরও একটি ভালো কাজে আমাদের সম্পৃক্ত করেছে। প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় পাঠ্য বই ছাড়াও বাহ্যিক বইয়ের গুরুত্ব অনেক।
অনুষ্টানে স্বাগত বক্তব্য দেন-প্রথম আলো কক্সবাজার আঞ্চলিক অফিস প্রধান সাংবাদিক আব্দুল কুদ্দুস রানা। তিনি বলেন, প্রথম আলো শিক্ষার্থীদের মেধার বিকাশে গণিত উৎসব, ভাষা উৎসব, ইন্টারনেট উৎসব, বিতর্ক উৎসব, বিজ্ঞান মেলা, ফিজিক্স অলিম্পিয়াডসহ নানা কর্মসূচি করে আসছে। মাদক প্রতিরোধ ও এসিড সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকে। তৃণমূলে বই পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে পাঁচ বছর ধরে কক্সবাজারে প্রথমার বইমেলা করে আসছে। ভবিষ্যতেও এধারা অব্যাহত রাখা হবে। অনুষ্টান সঞ্চালনা করেন প্রথম আলো বন্ধুসভার সভাপতি ইব্রাহিম খলিল। উদ্বোধনী অনুষ্টানে স্থানীয় সাংবাদিক, কবি সাহিত্যিক, আইনজীবী, শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ শ্রেণি-পেশার লোকজন উপস্থিত ছিলেন।
মেলায় প্রথমা ও বেঙ্গল পাবলিকেশন্সের বই ছাড়াও দেশি-বিদেশি আরও বই পাওয়া যাচ্ছে।
মেলায় প্রথমা প্রকাশনের বইয়ে ৩০% থেকে ৬০% পর্যন্ত ছাড় দেওয়া হচ্ছে। বেঙ্গল প্রকাশনীর বইতে ছাড় থাকছে ২৫% থেকে ৫০% এবং অন্যান্য প্রকাশনীর বইতে ছাড় দেয়া  হচ্ছে ২৫ %। বইমেলা আয়োজনে সহযোগিতা দিচ্ছে  প্রথম আলো বন্ধুসভা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •