চীন সংবাদদাতাঃ
বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) এর মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদ রাব্বী হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে বিশ্বের অন্যতম পরাশক্তির দেশ চীনে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
১৩ অক্টোবর বাংলাদেশী ছাত্র পরিষদের ব্যানারে এই বিক্ষোভ কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন ডাক্তার আরমান।
বক্তব্য রাখেন- ছাত্র পরিষদের সভাপতি গবেষক ইঞ্জিনিয়ার বশির উদ্দীন মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার জিল্লুর রহমান ফারহান।
বক্তারা বলেন, তাবেদার ভারতের সমালোচনা করে ফেসবুক স্ট্যাটাস লিখার অজুহাতে বাংলাদেশের সম্ভাবনার প্রতীক আবরার ফাহাদকে নৃশংসভাবে হত্যা করে ছাত্রলীগ নামধারী সন্ত্রাসীরা। বুয়েট ক্যাম্পাসে রক্তের ইতিহাস সৃষ্টি করল সরকারি দলের ক্যাডাররা। খুনিদের উপযুক্ত বিচার নিশ্চিত করতে হবে। আর্থিক ক্ষতিপূরণসহ নিহতের পরিবারের সমস্ত সমস্যার সমাধান সরকারকেই দায়িত্ব নিতে হবে।
বিক্ষোভ বক্তারা আরো বলেন, শুধু বুয়েট নয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের প্রায় বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস বর্তমানে ছাত্রলীগের সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যের কেন্দ্রস্থলে পরিণত হয়েছে। সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি ও টেন্ডারবাজিতে শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট করে ফেলেছে। বিরোধী মত প্রকাশকারীদের উপর শারীরিক ও মানসিক টর্চারের ঘটনা ঘটছে অহরহ।
বুয়েট ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের গোপন টর্চার সেলে আবরারসহ অসংখ্য ছাত্র নির্যাতনের শিকার হয়েছে। ঘটনায় জড়িত সবার অনুসন্ধান পূর্বক বিচারের মুখোমুখি করার দাবী তোলেন ছাত্র পরিষদের নেতৃবৃন্দ।
বিক্ষোভ কর্মসূচিতে বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের শিক্ষার্থীরা স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ করেন।
বিক্ষোভ কর্মসূচি শেষে আবরার ফাহাদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় মোনাজাত করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •