এম.মনছুর আলম, চকরিয়া :
কক্সবাজারের চকরিয়ায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে বরইতলী-পেকুয়া আঞ্চলিক সড়ক থেকে দেশীয় তৈরি এক হাজার লিটার চোলাই মদ উদ্ধার করেছে। এ সময় পুলিশ মদ পাচারকাজে ব্যবহ্নত পিকআপ গাড়ীর চালক পারভেজ উদ্দিন (২৮) কে আটক করা হয়। বুধবার (৯অক্টোবর) ভোর সাড়ে ৫টার দিকে উপজেলার বরইতলী-পেকুয়া আঞ্চলিক মহাসড়কের বরইতলীস্থ বুড়ির দোকান নামক এলাকায় পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে এ সব চোলাইমদ উদ্ধার করে। আটক পিকআপ গাড়ীর চালক পারভেজ উদ্দিন উপজেলার কাকারা ইউনিয়নের সাকের মোহাম্মদ চর এলাকার নুরুল কবিরের ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বরইতলী-পেকুয়া আঞ্চলিক মহাসড়ক দিয়ে বুধবার ভোররাত্রে দেশীয় তৈরি পিকআপ ভর্তি চোলাইমদ পাচার করার গোপন সংবাদ পেয়ে চকরিয়া থানার (ওসি) হাবিবুর রহমানের নির্দেশে হারবাং পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (পুলিশ পরিদর্শক) আমিনুল ইসলামের নেতৃত্বে ফাঁড়ির এস আই খাইরুল আলমসহ সঙ্গীয় পুলিশ নিয়ে একট টীম অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানকালে বরইতলী-পেকুয়া-মগনামা সড়কের বরইতলীস্থ বুড়ির দোকান এলাকা থেকে পুলিশ দেশীয় তৈরি বিশ বস্তা (১হাজার) লিটার চোলাই মদসহ একটি পিকআপ গাড়ী জব্ধ করে। পিকআপ ভর্তি ওই চোলাইমদ পেকুয়ার দিকে নিয়ে যাচ্ছিল। এসময় মদ পাচার কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে গাড়ীর চালকে আটক করেছে পুলিশ।

উদ্ধার অভিযানে নেতৃত্বে দেয়া হারবাং পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (পুলিশ পরিদর্শক) আমিনুল ইসলামের বলেন, বরইতলী-পেকুয়া-মগনামা সড়কের বরইতলীস্থ বুড়ির দোকান এলাকায় গোপন সংবাদের মাধ্যমে অভিযান চালিয়ে দেশীয় তৈরি বিশ বস্তা (১হাজার) লিটার চোলাই মদসহ একটি পিকআপ গাড়ী জব্ধ করা হয়েছে। এ সময় মদ পাচারে জড়িত থাকার অভিযোগে গাড়ির চালক পারভেজ উদ্দিনকে আটক করা হয়। এ নিয়ে আটক চালককের বিরুদ্ধে থানায় সংশ্লিষ্ট মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ধৃত ব্যক্তিকে বিকালে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •