আবুল কালাম, চট্টগ্রাম:

নগরীর ইপিজেড থানা এলাকার বাহাদুর শাহ কলোনীর গলীর মুখে রাস্তার উপরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে মাদক ব্যবসায়ি চক্রের চার সদস্য আটক করেন ইপিজেড থানা পুলিশ।

শুক্রবার (৪ অক্টোবর) ১২,৪৫ মিনিটের দিকে বিশেষ অভিযানে তাদের আটক করা হয়। এ সময় তাদের কাছে থেকে তল্লাশি করে ৫০০ গ্রাম হিরোইন উদ্ধার করেন।

আটককৃত আসামীরা হলো ১, মোঃ শহিদুল ইসলাম (২৮), পিতা-ছোলেমান হাওলাদার, সাং-দক্ষিণ গাজীপুর, ৭নং শংকর পাশা ইউনিয়ন, থানা-পিরোজপুর সদর, জেলা-পিরোজপুর, বর্তমানে-বন্দরটিলা, কসাইগলি, থানা-ইপিজেড, চট্টগ্রাম, ২) মোঃ শামীম (৩১), পিতা-তৌমিদুল ইসলাম, সাং-নেয়ামতপুর, কানচিল বাড়ী, ৫নং ইউনিয়ন, থানা-পিরগঞ্জ, জেলা-ঠাকুরগাঁও, বর্তমানে-দারুস্সালাম মসজিদের পিছনে, নিচ তলার ২নং রুম, থানা-ইপিজেড, , ৩, মোঃ দাদন মিয়া (৩০), পিতা-মজিবুল হক পাঠান সাং-চরমাইজারা, পাঠান বাড়ী, ৬নং ইউনিয়ন, থানা-গোসাইরহাট, জেলা-শরীয়তপুর, বর্তমানে-নগরীর পশ্চিম মাদার বাড়ী, জুগিচাঁদ মসজিদের সামনে কমার্স কলেজের পিছনে, থানা-সদরঘাট ৪, মোঃ সাইদুল ইসলাম (২৬), পিতা-আব্দুর ছাত্তার চকিদার, , সাং-কৃষ্ণ নগর, কুকুয়া ইউনিয়ন, চৌকিদার বাড়ী, থানা-আমতলী, জেলা-বরগুনা, বর্তমানে-বন্দরটিলা, নেভীহল রোড, শহীদ কলেনী, ৩নং রুম, থানা-ইপিজেড,।
নগরীর ইপিজেড থানার এসআই রাজীব দে উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মূখে আসামীদের দেহ তল্লাশী করিয়া প্রত্যেক আসামীর হেফাজত হইতে সর্বমোট ৫০০ (পাঁচশত) গ্রাম হেরোইন, যাহার বাজার মুল্য সর্বমোট মূল্য-৫০,০০,০০০/- (পঞ্চাশ লক্ষ) টাকা উদ্ধার করেন।

আসামীদের বিরুদ্ধে ইপিজেড থানায় নিয়মিত মামলা রুজু করা হইয়াছে।

  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •