যমুনা : লক্ষ্মীপুরে স্বামীর যৌতুকের মামলায় স্ত্রীকে কারাদণ্ড ও জরিমানা করেছেন আদালত। সোমবার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট বিচারিক আদালত-৩-এর বিচারক নুসরাত জামান এ রায় প্রদান করেন। এ সময় আদালতে স্বামী-স্ত্রী দুজনে উপস্থিত ছিলেন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, চার বছর আগে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জ ইউনিয়নের আলীপুর গ্রামের সফি উল্যাহ ভূঁইয়ার মেয়ে আয়েশা আক্তার মিতুর সঙ্গে একই ইউনিয়নের ধর্মপুর গ্রামের সৈয়দ আহম্মদের ছেলে ওয়াহেদ আলীর বিয়ে হয়। গত ২০১৮ সলের ৮ই মে ওয়াহেদ আলীর দেয়া স্বর্ণালংকার ও ঘরে রক্ষিত নগদ টাকা নিয়ে মিতু স্বামীর বাড়ি থেকে বাবার বাড়ি চলে যায়। এ ঘটনায় দুই পক্ষের সমর্থনে শালিস বৈঠক বসে। শালিসে স্ত্রী মিতু স্বামীর কাছে নগদ ৫ লক্ষ টাকা ও তার নামে ১০ শতাংশ জমি রেজিস্ট্রি করে দেওয়ার দাবি করেন।

টাকা ও জমি দাবি করলে ওয়াহেদ আলী বাদী হয়ে ২০১৮ সালের ১৬ই মে লক্ষ্মীপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে স্ত্রীর বিরুদ্ধে যৌতুক নিরোধ আইনের ৪ ধারায় মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় দীর্ঘ শুনানি শেষে আদালত ওয়াহেদ আলীর স্ত্রী আয়েশা আক্তার মিতুকে দোষী সাব্যস্ত করে এক বছর কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো ৩ মাসের কারাদণ্ড দেয় আদালত।

  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •