প্রেস বিজ্ঞপ্তি:

ঋতু বৈচিত্রের দেশ বাংলাদেশ। এখানে শরৎকাল এসে মানুষের মনের ও ভাবের পরিবর্তন করে। প্রকৃতি এসময় অপরূপ রূপ ধারণ করে। ঋতুর কারনেই এসময় মানুষের মনে কাব্যভাবের সৃষ্টি হয়। এসময় মানুষের সাংস্কৃতিক মননের পরিচয় পাওয়া যায়। কক্সবাজার অঞ্চলে আমন ধান রোপনের পরে মানুষের দীর্ঘ অবসর যাপনে এসময় প্রকৃতির রূপের সাথে মানুষ বিনোদনে মেতে উঠে। বিশেষ করে শরৎ ঋতুতে মানুষ রাতের বেলায় হাইল্যাগীত, হাঁওলা, ভাইট্যাল্লাগীত, লেটোর গান, কবির লড়াই, পুঁথি পাঠ ইত্যাদি নিয়ে মেতে থাকে। এর মাধ্যমে এখানকার মানুষ নিজের মনের সাংস্কৃতিক মনের পরিচয় প্রকাশ করে। এসব কিছুই হচ্ছে মূলত প্রাকৃতিক পরিবর্তন তথা শরৎ ঋতুর আগমনে।

কক্সবাজার সাহিত্য একাডেমীর ৪৫৬ তম পাক্ষিক সাহিত্য সভায় বক্তাগণ এসব কথা বলেন।

কক্সবাজার সাহিত্য একাডেমীর সভাপতি মুহম্মদ নূরুল ইসলামের সভাপতিত্বে ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ শনিবার বিকালে কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে সাহিত্য সভা অনুষ্ঠিত হয়।

বক্তাগণ আরো বলেন, শরৎকাল প্রকৃতির পরিবর্তনের সাথে সাথে মানুষের মনের পরিবর্তনও ঘটায়। এই পরিবর্তনের ফলে মানুষ সাহিত্য রচনা করতে উদ্বুদ্ধ হয়।

বক্তাগণ বলেন, এসময় প্রকৃতি পরিবর্তনের ফলে মানুষ প্রকৃতির প্রেমে পড়ে যায়, মানুষ ভাবুক হয়ে যায়, মানুষ উদাসিন হয়ে পড়ে। এর মাধ্যমে মানুষ সহজেই সাহিত্য সৃষ্টি করে।

সভায় মূখ্য আলোচক ছিলেন একাডেমীর স্থায়ী পরিষদের চেয়ারম্যান কবি সুলতান আহমেদ। অন্যদের মধ্যে আলোচনা করেন একাডেমীর স্থায়ী পরিষদের সদস্য গবেষক নূরুল আজিজ চৌধুরী, একাডেমীর সহ-সভাপতি ও কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ছড়াকার মে. নাছির উদ্দিন, একাডেমীর নির্বাহী সদস্য ও কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক গল্পকার সোহেল ইকবাল ও উত্তর নুনিয়াছড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কবি জোসনা ইবকাল।

একই সাথে শরৎকাল নিয়ে স্বরচিত কবিতা পাঠ করেন কবি সুলতান আহমদ, কবি সোহেল ইকবাল ও কবি জোসনা ইকবাল প্রমুখ।

কক্সবাজার সাহিত্য একাডেমীর ৪৫৭ তম সাহিত্য আগামী ৫ অক্টোবর

কক্সবাজার সাহিত্য একাডেমীর ৪৫৭তম পাক্ষিক সাহিত্য সভা আগামী ৫ অক্টোবর ২০১৯ শনিবার বিকাল ৪টায় কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সভা কক্ষে অনুষ্ঠিত হবে। উক্ত সাহিত্য সভায় সাহিত্য মুক্তিযুদ্ধের সাহিত্য বিষয় নিয়ে আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে।

অনুষ্ঠানে একাডেমীর সংশ্লিষ্ট সকলসহ জেলার কবি-সাহিত্যিক, সাহিত্যামোদিদের যথাসময়ে উপস্থিত থাকার জন্য একাডেমীর সভাপতি মুহম্মদ নূরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক কবি রুহুল কাদের বাবুল আহবান জানিয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •