অনলাইন ডেস্ক:

সাংবাদিক জামাল খাশোগির হত্যাকাণ্ডের দায় নিলেন সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, যেহেতু তার দায়িত্বের অধীনেই এ ঘটনা ঘটেছে, এর দায়ও তার।

রয়টার্স জানায়, ১ অক্টোবর খাশোগি হত্যাকাণ্ডের এক বছর পূরণ হবে। এ উপলক্ষে যুক্তরাষ্ট্রের পিভিএস চ্যানেলের একটি ডকুমেন্টারিতে সৌদি যুবরাজের এই সাক্ষাৎকার ধারণ করা হয়। সেদিনই এটি প্রচারিত হবে।

খাশোগি হত্যাকাণ্ড নিয়ে এ প্রথম মুখ খুললেন মোহাম্মদ বিন সালমান। পিবিএসের মার্টিন স্মিথকে দেওয়া সাক্ষাৎকারটির একটি প্রিভিউতে দেখা যায় যুবরাজ বলছেন, “এটা আমার দায়িত্বের অধীনে হয়েছিল। এ হত্যাকাণ্ডের সব দায় আমার।”

সৌদি যুবরাজের কড়া সমালোচক ছিলেন ওয়াশিংটন পোস্টের কলামিস্ট খাসোগি। বিয়ের কাগজপত্রের জন্য তুরস্কের ইস্তানবুলে সৌদি কনস্যুলেটে গেলে সেখানে হত্যাকাণ্ডের শিকার হন তিনি।

তুরস্কের তদন্তে এ হত্যাকাণ্ডের পরিকল্পনাকারী হিসেবে শুরুতেই নাম উঠে আসে সৌদি যুবরাজের। যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিবেদনেও ওঠে আসে, এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান জড়িত। তার নির্দেশেই খাশোগিকে হত্যা করা হয়।

এমনকি তার দেহ কেটে ছিন্ন-বিচ্ছিন্ন করে ফেলা হয় এবং গোপন জায়গা তা সরিয়ে ফেলা হয় বলেও সে প্রতিবেদনে ওঠে আসে।

রিয়াদ থেকে যাওয়া ১৫ সদস্যের একটি ডেথ স্কোয়াড খাশোগিকে হত্যা করে। তবে সৌদি যুবরাজের সম্পৃক্ততা অস্বীকার করে রিয়াদ জানায়, বিপথগামী কিছু এজেন্ট এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। পরবর্তীতে এ বছরের শুরুতে ১১ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে সৌদি সরকার।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •