জন্ম-মৃত্যুর যে বিষয়গুলো মানুষ কখনো চিন্তা করে না…!

ধর্ম ডেস্ক:
জন্ম নেয়ার পর ধ্রুবসত্য হচ্ছে মানুষকে একদিন মৃত্যুবরণ করতে হবে। মানুষের জন্ম ও মৃত্যুতে এমন কিছু কাজ ও বিষয় রয়েছে, যে বিষয়গুলো নিয়ে মানুষ কখনো চিন্তা করে না। জানতে চায় না এ সব বিষয়ের পেছনে কী কারণ লুকিয়ে আছে।

যখনই মানুষ জন্ম-মৃত্যুর মাঝে বিষয়গুলো জানার চেষ্টা করবে কিংবা চিন্তা করবে তখনই তার জীবনাচারে পরিবর্তন আসবে। জীবনকে উপলব্দি করতে শেখবে। দুনিয়ার কাজ সঠিকভাবে পালন ও পরকালের প্রস্তুতি গ্রহণে সচেষ্ট হবে।

কেননা মৃত্যু এমন এক জিনিস, যা আসার পর কোনো মানুষ এক কদম সামনেও যেতে পারবে না আর না পারবে পেছনে যেতে। যেখানে মৃত্যু আসবে সেখানেই তা বাস্তবায়ন হবে।

মানুষের জন্ম-মৃত্যু নিয়ে ফেসবুকে ‘জন্ম মৃত্যুর আশ্চর্য মিল’ শিরোনামে একটি লেখা নজরকাড়ে। সাংবাদিকতার পেশাকে আঁকড়ে ধরার সংগ্রামে নিয়োজিত এক মফস্বল সাংবাদিক সাইফুল ইসলাম সুমন তার ফেসবুক ওয়ালে এ লেখাটি তুলে ধরেন-

●●●#জন্ম_মৃত্যুর_আশ্চর্য_মিল ●●●

>> যখন তুমি জন্ম গ্রহণ করো, তখন তোমার কানে আজান দেয়া হয়, কিন্তু সালাত (পড়া হয় না) নয়। আবার যখন তুমি মৃত্যুবরণ করো, তখন সালাত (জানাজা) আদায় হয়, আজান (হয় না) নয়।

>> যখন তুমি মাতৃগর্ভ থেকে বের হও, (তুমি) জাননা, কে তোমাকে বের করেছে? এমনিভাবে যখন তোমার মৃত্যু হয়, (তখনও) তুমি জাননা, কে তোমাকে কবরে রেখেছে?

>> যখন তুমি জন্মগ্রহণ কর, তোমাকে গোসল দেয়া হয়, পরিষ্কার করা হয়। অনুরুপভাবে যখন তুমি মৃত্যুবরণ করো, তখনও তোমাকে গোসল (দেয়া হয়) ও পরিচ্ছন্ন করা হয়।

>> যখন তুমি জন্মগ্রহণ কর, তোমার জন্মে কে খুশি হয়েছে, কে তোমাকে স্বাগত জানিয়েছে তখন (তুমি) জাননা। এমনিভাবে যখন তুমি মৃত্যুবরণ করো, তখনও (তুমি) জাননা, কে তোমার জন্য কেঁদেছে এবং কে তোমার বিদায়ে দুঃখ প্রকাশ করেছে?

>> যখন তুমি মাতৃগর্ভে ছিলে, সে স্থানটি ছিল সংকীর্ণ ও অন্ধকার। আবার যখন তোমাকে কবরে রাখা হবে, সেটিও সংকীর্ণ ও অন্ধকার।

>> যখন তুমি জন্মগ্রহণ করেছ, তখন তোমাকে একটি কাপড় দিয়ে জড়িয়ে ধরা হয়েছে । আবার যখন মৃত্যুবরণ করবে, তখনও তোমাকে কাপড় দিয়ে জড়িয়ে ঢেকে রাখা হবে।

>> জন্মের পর বড় হলে (ভালো কিছু করলে) লোকেরা তোমার যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করবে । তেমনিভাবে যখন তোমাকে কবরে রাখা হবে ফেরেশতারা তোমার (দুনিয়ার) আমল সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করবে।

সুতরাং মানুষের উচিত জন্মের সময়ে ঘটে যাওয়া বিষয়গুলোও মৃত্যুর সময় বা মৃত্যুর পর ঘটবে। আর সেসব বিষয়গুলো থেকে শিক্ষা নিয়ে জীবন পরিচালনা ও সুন্দর করা সবার জন্যই জরুরি।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে জন্ম-মৃত্যুর এ বিষয়গুলোকে বিবেচনা করে নিজের জীবন সুন্দর করার তাওফিক দান করুন। পরকালের সফলতায় দুনিয়াতে পুঁজি অর্জনের তাওফিক দান করুন। আমিন।

সর্বশেষ সংবাদ

পরিবহন ধর্মঘটে অচল দেশ, ভোগান্তিতে যাত্রীর

ফ্লাইট এলেও পেঁয়াজ আসেনি!

অবৈধ পথে ভারতে প্রবেশকালে বেনাপোলে পাচারকারীসহ ৫৪ জন আটক

স্থানীয়দের নগদ অর্থ নয়, গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের সহযোগিতা করুন : নিকারুজ্জামান

তারেক রহমান মানে গণতন্ত্র, উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির নাম

সৌদিআরবে লুৎফুর রহমান কাজলের জন্মদিন পালন করলো কক্সবাজার জেলা ফোরাম

ইরানের বিক্ষোভে নিহত ১০৬ : অ্যামনেস্টি

এনআরসি আতঙ্কে ভারত থেকে বাংলাদেশে ঢুকছে শতশত মানুষ

লবণের দাম বৃদ্ধির ‘তুঘলকি কান্ড’ দেশজুড়ে চলছে এ্যাকশন

পুলিশ লাইনের পিছনে চলছে বেপরোয়া পাহাড় কাটা

অতিরিক্ত দামে লবণ বিক্রি করায় ১৩৩ জন আটক

মাতারবাড়ির সাবেক চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ’র ৮ম মৃত্যু বার্ষিকী আজ

সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বিনামূল্যে ওয়াইফাই দেবে সরকার

সিপ্লাস টিভির এডিটর আলমগীর অপু সরকারের আমন্ত্রণে ইন্দোনেশিয়া যাচ্ছেন

১০৬ এ ভুক্তভোগীর কল পেয়ে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসে দুদকের অভিযান

আমার বিরুদ্ধে অনুসন্ধান চালালে অনেক এমপি-মন্ত্রীর যাবজ্জীবন হবে: নাজমুল

বেশি দামে লবণ বিক্রি : লোহাগাড়ায় ৫ ব্যবসায়ীকে ৮০ হাজার টাকা জরিমানা

রোহিঙ্গা নির্যাতন: মিয়ানমারের বিচার শুরু ডিসেম্বরে

বাহারছড়ায় ট্রাকের চাপায় টমটম যাত্রী নিহত

পেকুয়ায় অন্তঃকোন্দলে ডাকাত নিহত, ১২টি বন্দুক ও ২৩ রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার