মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

বাংলাদেশের সাথে জাপানের বন্ধুত্ব সুদীর্ঘকালের। রোহিঙ্গা শরনার্থীরা বাংলাদেশের জন্য একটা বিশাল চাপ। এ চাপ দীর্ঘদিন সহ্য করার ক্ষমতা বাংলাদেশের নেই। বিষয়টি জাপান সরকার অনেক আগেই উপলব্ধি করেছে। তাই রোহিঙ্গা শরনার্থী প্রত্যাবাসনে জাপান সরকার বাংলাদেশকে সম্ভব সব ধরনের সহযোগিতা দেবে।
বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানের চ্যার্জ দা এফেয়ার্স মি. হিরোইওকি (Charge d’ Affairs Mr. Hiroyuki) কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেনের সাথে তাঁর কার্যালয়ে এক বৈঠকে একথা বলেন। কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের বিশ্বস্থ একটি সুত্র সিবিএন-কে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। মঙ্গলবার ২৪ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত বৈঠকে জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন জাপান বাংলাদেশের পরীক্ষিত বন্ধু রাষ্ট্র ও এদেশের সবচেয়ে বড় উন্নয়ন সহযোগী হিসেবে অভিহিত করেন। জেলা প্রশাসক রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সহযোগিতা, হোস্ট কমিউনিটির আর্ত সামাজিক উন্নয়ন, কক্সবাজারে জাপানের আর্থিক সহযোগিতায় চলমান মেগা উন্নয়ন প্রকল্পসহ বিভিন্ন ইস্যু তুলে ধরেন এবং এসকল বিষয়ে ফলপ্রসূ আলোচনা হয়। বৈঠকে কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব -উপসচিব) মোহাম্মদ আশরাফুল আফসার ও জাপানের চ্যার্জ দা এফায়ার্সের সাথে তাঁর ২ জন সফর সঙ্গী উপস্থিত ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •