অনলাইন ডেস্ক : বরযাত্রী কনের বাড়ি যাবেন। বিয়ে সম্পন্ন হওয়ার পর কনেকে নিয়ে বাড়ি ফিরবেন। এমন রীতির সাথেই এতোদিন পরিচিত ছিলো মেহেরপুরের মানুষ। কিন্তু এবার উল্টো রীতিও তাদের দেখা হয়ে গেলো।

কনেযাত্রী গেল বরের বাড়ি। পরে বিয়ে করে বরকে নিজের বাড়িতে নিয়ে গেল। মেহেরপুরের গাংনীতে আজ এ ব্যতিক্রমী ঘটনা ঘটে।

এমন উল্টো রীতির বিয়ে নিয়ে উপজেলার মানুষের মধ্যে ব্যাপক আগ্রহ তৈরি হয়। সকাল থেকেই বিয়ে বাড়িতে হাজির হয় শত শত মানুষ।

ব্যতিক্রমী এ বিয়ের কনে চুয়াডাঙ্গা জেলার হাজরাহাটি গ্রামের কামরুজ্জামানের মেয়ে খাদিজা আকতার। বর গাংনী শহরের ওয়ার্কাস পার্টির নেতা কমরেড আব্দুল মাবুদ ছেলে তরিকুল ইসলাম।

দুপুরে কয়েকটি মাইক্রোবাসে করে বরের বাড়ির গেইটে নামেন কনে। তাকে বরণ করে নেয় বরের বাড়ির লোকজন। তারপর বিয়ে সম্পন্ন হয়। খাওয়া-দাওয়া শেষে বর তরিকুলকে নিজের বাড়িতে নিয়ে যান কনে খাদিজা।

এমন বিয়েতে খুশি বর-কনে দুইজনই। তারা জানান, মেয়েদের সম্মান জানাতেই এমন আয়োজন।

বরের বাবা আব্দুল মাবুদ বলেন, আগেকার বিয়ের রীতি ভেঙে এখানে যে ব্যাতিক্রমী বিয়ের আয়োজন করা হয়েছে তাকে আমি সাধুবাদ জানাই। নারী পুরুষের যে বৈষম্য আমাদের সমাজে রয়েছে সেটা দূর হবে যদি এমনভাবে বিয়ে হয়। তাছাড়া বিয়ে বাড়িতে এতদিন যে কনে পক্ষের একটা বিশাল খরচ হয়ে আসত সেটা দূর হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •