cbn  

ইমাম খাইর, সিবিএনঃ
কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁও দক্ষিণ মাইজপাড়া থেকে নুরুল আলম (৩৭) নামের টমটম চালকের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। সে কক্সবাজার সদরের ইসলামপুর মধ্যম নাপিতখালী ৪ নং ওয়ার্ডের আব্দুস ছবির ছেলে।
এসময় ঘটনাস্থল থেকে জোহান (৩০) নামের এক যুবককে কার্তুজ ও গুলিসহ হাতেনাতে আটক করে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয়রা। সে দক্ষিণ মাইজপাড়ার বাসিন্দা সামরিক বাহিনীর সাবেক লেঃ কর্ণেল এহছানুল হকের ছেলে।
এছাড়াও একজন সিএনজি চালক ও পার্শ্ববর্তী বাড়ির কেয়ারটেকারকেও আটক করা হয়েছে। জব্দ করা হয়েছে দুইটি মোটরসাইকেল, একটি সিএনজি ও একটি টমটম।
শনিবার (২১ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত সাড়ে দশটার দিকে ইউনিয়নের সিদ্দিকের বাপের পুকুর পাড়ে ঘটনাটি ঘটেছে।
খবর পেয়ে ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আসাদুজ্জামানের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে। শনিবার রাত সাড়ে ১১ টায় এই রিপোর্ট লেখাকালে পুলিশ ঘটনাস্থলে রয়েছে।
ঈদগাঁও ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মাহবুবুল আলম মাহবুব মুঠোফোনে সিবিএনকে এই খবর দিয়েছেন।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, আটক জোহান নিজের হাতে গুলি করে হত্যা করেছে টমটম চালককে। এরপর সিএনজিতে ভরে নিয়ে যাওয়ার সময় এলাকাবাসী ধাওয়া দিয়ে তাকে আটক করে। ঘটনার কারণ জানা যায়নি। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে আসল রহস্য বেরিয়ে আসবে বলে এলাকাবাসীর ধারণা।

প্রত্যক্ষদর্শী এক নারী (যাদের বাড়ির উঠানে ঘটনা)  ঘাতকসহ তিনজনকে চিনতে পেরেছে। আরো দুইজনকে ধরতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।
ঘাতক জোহান ইতিপূর্বে অস্ত্র ও ইয়াবাসহ কক্সবাজার কলাতলীতে আটক হয়ে দীর্ঘদিন কারা ভোগ করছিল। জামিনে এসে পুরোদমে নেমে পড়ে মাদক ব্যবসায়। সে প্রকাশ্যে অস্ত্র নিয়ে ঘোরাফেরা করে বলেও জানা গেছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •