গ্লোবাল ক্লাইমেট স্ট্রাইক সমর্থনে কক্সবাজারে মানববন্ধন

প্রকল্প বাস্তবায়নের নামে বনজ সম্পদ ধ্বংস করা হচ্ছে

ইমাম খাইর, সিবিএন:
প্রকল্প বাস্তবায়নের নামে বনজ সম্পদ ধ্বংস করা হচ্ছে বেশি। তাই বিশ্বব্যাপী জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে প্রায় ১৫০ টির বেশি দেশে আয়োজিত ফ্রাইডে স্ট্রাইক নামে খ্যাত ছাত্রছাত্রীদের ডাকা গ্লোবাল ক্লাইমেট স্ট্রাইক আন্দোলনের প্রতি সমর্থন জানিয়ে কক্সবাজারে মানববন্ধন করেছে কক্সবাজার ইয়ুথ জলবায়ু ফোরাম।
শুক্রবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকালে কক্সবাজার বিভাগীয় বনবিভাগের অফিসরে সামনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে এই কর্মসূচি পালিত হয়।
মানববন্ধন ও সমাবেশে প্রতিপাদ্য বিষয়ে বক্তব্য রাখেন- কক্সবাজার জেলা জলবায়ু ফোরামের সভাপতি মুহম্মদ নূরুল ইসলাম, কক্সবাজার উপজেলা জলবায়ু ফোরামের সভাপতি আবদুর রহিম, উপজেলা জলবায়ু ফোরামের সহসভাপতি রুহুল কাদের বাবুল, উপজেলা জলবায়ু ফোরামের সদস্য মো: নাসিরউদ্দিন, কামাল উদ্দিন রহমান পিয়ারু, কক্সবাজারের যুব নেতা মিজানুর রহমান বাহাদুর, কক্সবাজার ইয়ুথ জলবায়ু ফোরামের সভাপতি মো: ইলিয়াছ মিয়া, সদস্য আবদুল মান্নান রানা ও রুহুল আমিন এবং বায়তুশ শরফ বিদ্যালয়ের ছাত্রী নিবেদিতা পাল। সমাবেশ অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন কোস্ট ট্রাস্টেও সহকারী পরিচালক মকবুল আহমেদ।
সমাবেশে বক্তারা বৈশ্বিক উষ্ণতা কমাতে ও উপকূলের নিম্নাঞ্চল ডুবে যাওয়া থেকে রক্ষা করতে বৃক্ষ ও পাহাড় সংরক্ষণ ও বন বৃদ্ধির উপর গুরুত্ব দেন।
বক্তারা বলেন, রাষ্ট্রের উদ্যোগে প্রকল্প বাস্তবায়নের নামে বনজ সম্পদ ধ্বংস হচ্ছে বেশি, তা বন্ধ করতে হবে। প্রকৃতি ধ্বংস করে নয়, রক্ষা করেই উন্নয়ন। কক্সবাজার জেলার উপকূলে গড়ে উঠা প্যারাবন ধ্বংস ও দখল বন্ধ করতে হবে বলে বক্তারা অভিমত ব্যবক্ত করেন।
মানববন্ধনে জেলা জলবায়ু ফোরাম সংশ্লিষ্টরা ছাড়াও সমাজের নানা স্তরের মানুষ অংশগ্রহণ করে।
বিশ্বব্যাপী এ আন্দোলনের ডাক দেন ১৬ বছর বয়সী সুইডিশ কিশোরী গ্রেটা থুনবার্গ। এ আন্দোলনের জন্য সম্প্রতি তিনি এমনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল থেকে পুরস্কার পান।
মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীদের হাতে ছিল ‘বৃক্ষ-পাহাড় রক্ষ করুন, মানুষ ও প্রাণীকুলতে বাঁচান’ শিরোনামে ব্যানার নিয়ে এবং নানা রংয়ের ফেস্টুন।
সবার কণ্ঠে আওয়াজ ওঠে- ‘টেকসই বেড়িবাঁধ দাও, কুতুবদিয়া-মহেশখালীর মানুষকে ডুবে যাওয়া থেকে বাঁচাও’, “বন ও পাহাড় ধ্বংস করে প্রকল্প বানানো বন্ধ কর”, “মানুষ বাঁচে অক্সিজেনে, বৃক্ষ দেয় সর্বজনে, বৃক্ষহীনে এই ধরিত্রী, উষ্ণ হচ্ছে পর্বত-গিরি, এমন বৃক্ষ কাটছে লোভী ডুববে ভিটা, মরবে সবি”, “বৃক্ষ বাঁচাও, তারা তোমাকে বাঁচাবে”, “বৃক্ষ বাঁচাও বৈশ্বিক উষ্ণতা দূর কর”, “বৃক্ষ বাঁচাও, কার্বন কমাও”, “পাহাড় ও বৃক্ষ নিধকারীদের রুখো”, “বৃক্ষ হলো ধরিত্রীর ফুসফুস”, “বৃক্ষ প্রাণসমৃদ্ধ, তাদের বাঁচান ও যতœ নিন”, “আমাদের বন দরকার, আমাদেরকে বনের লাগে না”, “নিজে বাঁচতে চাইলে বনকে বাঁচাও”, “বন হলো অক্সিজেনের ফ্যাক্টরী”, “বৃক্ষ আনে বৃষ্টি, বৃষ্টি আনে স্বস্তি”, “আজকের গাছটি বাঁচাও, তারা কাল তোমাকে বাঁচাবে”।

সর্বশেষ সংবাদ

চসিক নির্বাচনে কাউন্সিলর প্রার্থী পদে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী

চকরিয়া মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সততা স্টোর উদ্বোধন

ছাত্রলীগের সাবেক ও বর্তমান নেতাকর্মীদের মিলনমেলা ২৯ ফেব্রুয়ারী

দীর্ঘ ৫৪ বছর পর শহীদ মিনার পেলো পৌর প্রিপ্যার‌্যাটরি উচ্চ বিদ্যালয়

সাংবাদিক আকাশের পিতা ওমরাহ হজ্ব করতে সৌদি যাত্রা : দোয়া কামনা

‘ মনগড়া’ সংবাদের প্রতিবাদ ও নিন্দা মিজানের

সরকারি সফরে গিয়াস উদ্দিন চৌধুরীর থাইল্যান্ড ও মালয়েশিয়া যাত্রা

উদ্ধার ৯৩লাখ ৮০ হাজার টাকা ও ১৫ লাখ টাকার চেক, মামলা করবে র‌্যাব

সার্ভেয়ারদের ব্যক্তিগত অপরাধের দায় জেলা প্রশাসন নেবেনা , আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা : ডিসি কামাল হোসেন

চকরিয়ায় বসতভিটার বিরোধে দুই পক্ষের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ, কলেজ ছাত্রীসহ আহত-২৪

হোটেল মোটেল জোনের আবর্জনা সংগ্রহ ও অপসারনে জরুরী সভা

এড. আমির হোছাইন হাইস্কুল ও আমির মরতুজা কে,জি’র বার্ষিক অনুষ্ঠান সম্পন্ন

ঈদগড়ে পুলিশের অভিযানে ৯৩০ পিচ ইয়াবাসহ ২ পাচারকারী আটক

দৈনিক আজকের দেশ-বিদেশে প্রকাশিত সংবাদে মনু’র প্রতিবাদ

খরুলিয়ায় স্কুল ছাত্রী অপহরণ, আটক ১

কক্সবাজার সাগর তীরে উঁচু স্থাপনা নির্মাণ করা যাবে না : প্রধানমন্ত্রী

চট্টগ্রামে ১৩’শ ইয়াবাসহ কক্সবাজারের মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেপ্তার

জিপিএ ৪-এর গ্রেডিংবিন্যাস চূড়ান্ত

বাঁকখালীর দু’তীরে হাজারো মানুষ খুঁজে নিয়েছে জীবন নির্বাহের গন্তব্য

রামুতে আটক ছয় রোহিঙ্গাকে ১ মাস করে সাজা