cbn  

জহিরুল ইসলাম, এথেন্স (গ্রিস) থেকেঃ
গ্রীসের প্রাচীন রাজধানী সেলোনিকায় অনুষ্ঠিত হলো আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা।
গত ৭-১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত গ্রীক সরকারের এই মেলায় বাংলাদেশী দ্যা জুট ফাইবারস বিডি ও শরিফ জুট মিল নামক দুটি পাট জাতীয় পণ্য প্রস্তুত ও রপ্তানি কারক প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করার সুযোগ লাভ করেন। তবে, পুরো ইউরোপের পাটের বাজার এই পর্যন্ত ইন্ডিয়ানদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। বাংলাদেশী উদ্যোক্তারাও চেষ্টা করছে বাজার নিয়ন্ত্রণে। যথাযথ পৃষ্ঠপোষকতা ও সহায়তা পেলে ব্যবসায়ীরা সফল হবে বলে আশা করছে।
এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপ প্রসঙ্গে দ্যা জুট ফাইবারস বিডির কর্ণধার ইঞ্জিনিয়ার মুহাম্মদ দেলোয়ার হোসাইন বলেন, গ্রীসে অনুষ্ঠিত এ মেলা সম্পর্কে আমার কাছে পূর্বে কোন তথ্য ছিল না। আমার প্রতিষ্ঠানের মার্কেটিং ম্যানেজার ঢাকার সন্তান গ্রীস প্রবাসি বাংলাদেশি রপ্তানি কারক বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মেহেদী হাসানের প্রায় দুই বছর ধরে গ্রীসের মার্কেটে জুট জাতীয় পণ্য নিয়ে কাজ করতে গিয়ে এই মেলার সন্ধান পান এবং সাথে গ্রীসে অবস্থান রত বাংলাদেশ দূতাবাসের মান্যবর রাষ্ট্রদূত প্রবাসবন্ধু জসিম উদ্দিন এনডিসির কূটনীতিক সহযোগিতায় আমার প্রতিষ্ঠান “দ্যা জুট ফাইবার বিডি “মেলায় অংশ গ্রহণের সুযোগ লাভ করেন “মেলায় অংশ গ্রহণের মধ্যদিয়ে ইউরোপের পাটের বাজার সম্পর্কে আমি বাস্তব অভিজ্ঞতা লাভ করতে পেরেছি এবং বিপুলসংখ্যক সাড়া পেয়েছি বলে উল্লেখ করেন মিস্টার হোসাইন।
তিনি আরও বলেন, মেলা শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত দূতাবাসের মান্যবর রাষ্ট্রদূত প্রবাসবন্ধু জসিম উদ্দিন এনডিসি, প্রথম সচিব সুজন দেবনাথ, কাউন্সিলর মুহাম্মদ খালেদ, লেবার কাউন্সিলর ডঃ ফারহানা নুরসহ সকল কর্মকর্তা বৃন্দের অক্লান্ত সহযোগিতা এবং উষ্ণ আতিথেয়তায় আমি মুগ্ধ হয়েছি।অনেক দেশে আমার প্রতিষ্ঠান পণ্য রপ্তানি করার সুযোগ হয়েছে। কিন্তু দূতাবাসের এমন আন্তরিকতা অন্য দেশে অবস্থিত বাংলাদেশি দূতাবাসের পক্ষ থেকে কল্পনা ও করতে পারিনি।
মিস্টার হোসাইন আরো বলেন, গ্রীসে বাংলাদেশী রাষ্ট্রদূতের মধ্যে প্রচন্ড দেশপ্রেমের লক্ষণ দেখেছি। দূতাবাস পরিবারের বিচক্ষণতায় ব্যবসায়িক প্রচুর সুযোগ পেয়েছি। মেলায় অংশ গ্রহণের মধ্যদিয়ে ইউরোপের পাটের বাজারটি ইন্ডিয়ানদের নিয়ন্ত্রণে।
গ্রীসের পাটের বাজারটি নিয়ন্ত্রণের করতে সর্বোচ্চ চেষ্টায় থাকার ইচ্ছা প্রকাশ করেন “দ্যা জুট ফাইবার বিডি “প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার ইঞ্জিনিয়ার মুহাম্মদ দেলোয়ার হোসাইন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •