আবুল কালম, চট্টগ্রাম:

চট্টগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দুই যাত্রীর ব্যগ স্ক্যানে মিল্লো বিপুল পরিমাণ বিদেশি সিগারেট ও মোবাইল ফোন জব্দ করেছেন এসব পুণ্য কাস্টমস কর্মকর্তারা। যার মুল্য প্রায় ৩০ লাখ টাকা বলে দাবি করেছেন তারা।

বুধবার ( ১৭ সেপ্টেম্বর) সকালে দুই যাত্রীর ব্যাগ স্ক্যান করে এগুলো জব্দ করা হয়।

কাস্টমস কর্মকর্তারা জানান, সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই থেকে বাংলাদেশ বিমানের একটি উড়োজাহাজে সকাল সাড়ে আটটায় চট্টগ্রামে আসেন মহিউদ্দিন নামের এক যাত্রী। তার তিনটি ব্যাগ স্ক্যান করে সন্দেহ হয় কর্মকর্তাদের। এরপর ব্যাগ খুলে ৮০ কার্টন বিদেশি ব্র্যান্ডের সিগারেট পাওয়া যায়। এতে ১৬ হাজার শলাকা সিগারেট আছে। তার বাড়ী চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলায়।

সকাল সাড়ে নয়টায় একই দেশ থেকে আসা আরেকটি উড়োজাহাজের যাত্রী মিজানুর রহমানের ব্যাগ তল্লাশি করে ৭৯টি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের মোবাইল ফোন পাওয়া যায়। মিজানুর রহমানের বাড়ি চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায়।

বিমানবন্দরে দায়িত্বরত চট্টগ্রাম কাস্টমসের সহকারী কমিশনার আমিনুল ইসলাম বলেন, লাগেজ সুবিধা অনুযায়ী একজন যাত্রী এক কার্টন সিগারেট ঘোষণা দিয়ে আনতে পারেন। একইভাবে দুটি মোবাইল ফোনও আনতে পারেন একজন যাত্রী। এর বেশি হলে শুল্ককর পরিশোধ করতে হয়।

তিনি বলেন, দুটি আলাদা ফ্লাইট থেকে জব্দকৃত ৭১টি মোবাইল সেট এবং ৮০ কার্টন সিগারেট চট্টগ্রাম কাস্টম হাউজে প্রেরণ করা হয়েছে। নিয়ম না মানায় দুই যাত্রীর বিরুদ্ধে কাস্টমস আইনে মামলা করা হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •