cbn  

কায়সার হামিদ মানিক,উখিয়া:

উখিয়ায় নুর জাহান নামের এক মহিলাকে বিয়ে করে বাড়িতে না নিয়ে প্রতারণার আশ্রয় নেয়ার অভিযোগ উঠেছে উখিয়া হাসপাতালের স্বাস্থ্য সহকারী ও স্যানিটারি ইন্সপেক্টর রুহুল আমিন খান (৩৬) এর বিরুদ্ধে।ভুক্তভোগি মহিলা ন্যায় বিচারের আশায় গত সোমবার উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়,গত জুন মাসের ১৯ তারিখে জালিয়াপালং ইউনিয়নের সোনাইছড়ি এলাকার মৃত ফজল করিমের মেয়ে নুর জাহান (২৯)কে একই ইউনিয়নের পাইন্যাশিয়া এলাকার নুর আহমদ এর ছেলে রুহুল আমিন খান (৩৬)এর সাথে ৬ লক্ষ টাকার চুক্তিনামা মূলে ১।ছৈয়দ আলম,২।জসিম,৩।মোঃ বাবুল,স্বাক্ষীদের মাধ্যমে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়।কিছুদিন পর শশুর বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার জন্য তার স্বামী রুহুল আমিন খানকে বললে সে বিভিন্ন অজুহাতে আজ কাল বলে সময় ক্ষেপন করতে থাকে।নুর জাহান সাংবাদিকদের অভিযোগ করে বলেন,বিয়ের পর থেকে আমার স্বামী আমাকে ভরণপোষণ না দিয়ে উল্টো আমার গরিব বাবার কাছে ৩ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবী করেন।যৌতুকের টাকা দিতে না পারায় আমার বাড়িতে এসে সময় অসময়ে আমাকে মানষিক ভাবে নির্যাতন করে।আমি নিরুপায় হয়ে আমার স্বামীর বড় ভাই নুরুল আলমকে ঘটনার বিষয়ে জানালে উল্টো আমাকে মারধরসহ প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে তাড়িয়ে দেয়।তাই আমি স্ত্রীর মর্যাদা ও ন্যায় বিচারের আশায় উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা,সিভিল সার্জনসহ বিভিন্ন দফতরে অভিযোগ দায়ের করেছি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •