সেলিম উদ্দীন, ঈদগাঁও

চকরিয়া উপজেলার খুটাখালী উচ্চ বিদ্যালয়ের আরমান হাসান আদর (১৫) নামের এক ছাত্র নিখোঁজ হয়েছে।
গত ২২ আগষ্ট সকালে স্কুল ড্রেস আনতে গিয়ে বাড়ি থেকে বের হওয়ার পর সে নিখোঁজ হয়। ওইদিন রাতে বিষয়টি স্থানীয় চেয়ারম্যান- মেম্বার ও থানা পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে। নিখোঁজ আরমান হাসান আদর খুটাখালী উচ্চ বিদ্যালয়ের চলতি সনের জেএসসি পরীক্ষার্থী ছিল।
সে ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ড ফরেষ্ট অফিস পাড়ার মনুর আলম ও শারমিন আক্তারের বড় ছেলে।
তাঁর পিতা মনুর আলম বিগত সাত বছর ধরে সাগর পথে মালয়েশিয়া পাড়ি দিতে গিয়ে নিখোঁজ রয়েছে।
নিখোঁজ আরমানের মা শরমিন জানান, তাঁর ছেলে ২২ আগষ্ট সকালে স্কুল ড্রেস আনতে সাতশত টাকা নিয়ে খুটাখালী বাজারে গেলে ঐ দিন থেকে আর ফিরে আসেনি।
এরপর সন্ধ্যার পরও বাড়িতে ফিরে না এলে প্রতিবেশীসহ বিভিন্ন আত্মীয় স্বজনের বাড়িতে খোঁজাখুঁজি করেন। কিন্তু আরমানের কোন খোঁজ পাননি। তিনি জানান, তাঁর ছেলে চলতি বছর খুটাখালী উচ্চ বিদ্যালয়ের জেএসসি পরীক্ষার্থী ছিল।পরীক্ষার আগেই সে নিখোঁজ হয়।
তিনি আরও জানান, আরমান শান্ত সিদা ছেলে, বাড়ি থেকে তেমন বাইরে কোথাও যায়নি।
তার বাবা নিখোঁজের পর থেকে ছেলে সন্তানদের মুখ চেয়ে দিনাতিপাত করছি বলে তিনি কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।
আরমান নিখোঁজের পর থেকে পরিবারের সদস্যরা ভেঙ্গে পড়েছেন।
ছেলেকে ফিরে পেতে তার মা শরমিন ডুকরে ডুকরে কেঁদে ছেলেকে উদ্ধারের জন্য প্রশাসনসহ সকলের সহযোগিতা চেয়েছেন।
কোন স্বহৃদয়বান তার সন্ধান পেলে তার মা মোবাইল নম্বর ০১৮৪৯ ৭৮৮৭৮০ যোগাযোগের জন্য পরিবারের পক্ষ থেকে অনুরোধ করা হয়েছে।
উল্লেখ আরমান নিখোঁজের সময় তার পরনে ফুলহাতা শার্ট,প্যান্ট ছিল। তার গায়ের রং শ্যামলা, তার মাথায় ও হাতে আগুনে পোড়া দাগ রয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •