মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

রোহিঙ্গা শরনার্থীদের ক্যাম্প গুলোতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরো জোরদার করা হবে। নিয়ন্ত্রণে আনা হবে রোহিঙ্গাদের অবাধ আসা যাওয়া। স্থানীয় জনগোষ্ঠীর নিরাপত্তা বলয়ও আরো বাড়ানো হবে। রোহিঙ্গারা যাতে মাদক ব্যবসা সহ বিভিন্ন অপরাধ কর্মে জড়াতে না পারে, এজন্য তাদের গতিবিধিও নিয়ন্ত্রণ করা হবে। রোববার ১৫ সেপ্টেম্বর কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এ.বি.এম মাসুদ হোসেন বিপিএম উখিয়া উপজেলার কয়েকটি রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্প, পুলিশ ক্যাম্প পরিদর্শনকালে একথা বলেন। বিদ্যমান পুলিশ ক্যাম্প গুলো ছাড়া ন্যূনতম আরো ৩ টি পুলিশ ক্যাম্প রোহিঙ্গা শিবির এলাকায় স্থাপনের পরিকল্পনা রয়েছে উল্লেখ করে এসপি এ.বি.এম মাসুদ হোসেন বিপিএম বলেন-পুরো রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্প কঠোর নিরাপত্তা বলয়ের মধ্যে নিয়ে আসা হবে। তিনি এসময় আরো কোথায় কোথায় পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করা দরকার সে সম্পর্কে ক্যাম্প ইনচার্জ, আইওএম, ইউএনএইসসিআর সহ সংশ্লিষ্ট সকলের সাথে কথা বলেন। ক্যাম্প পরিদর্শনকালে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোহাম্মদ ইকবাল হোসাইন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) রেজওয়ান আহমেদ, উখিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নিহাদ আদনান তাইয়ান, আরআরআরসি অফিসের উর্ধ্বতন কর্মকতাগণ, ক্যাম্প ইনচার্জবৃন্দ, উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আবুল মনসুর প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। একইদিন পুলিশ সুপার এ.বি.এম মাসুদ হোসেন বিপিএম কক্সবাজার পুলিশ লাইনের ড্রিল শেডে অনুষ্ঠিত পুলিশের কীট প্যারেড পরিদর্শন করেন। এসময় তাঁর সাথে জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকতারা উপস্থিত ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •