এম.মনছুর আলম, চকরিয়া:
গাছের চারার সাথে এ কেমন শত্রুতা ! পড়ে রয়েছে সারি সারি গাছের কাটা চারা। গত দেড় বছর ধরে পরিচর্যা মাধ্যমে ক্রমে পরিপুষ্ট হয়ে উঠা এধরণের অন্তত তিনশত চারা গাছের অগ্রভাগ রাতের আধাঁরে নিধন করেছে দুর্বৃত্তরা। কক্সবাজারের চকরিয়ার সীমান্তবর্তী ফাইতং ইউনিয়নের ৪নম্বর ওয়ার্ডস্থ খেদারবন ইসলামিক মিশন সম্মুখীন মাষ্টার সালাহ উদ্দিনের বাগানে শনিবার দিবাগত রাতে এ ঘটনাটি ঘটে। এ নিয়ে ভুক্তভোগী বাগানের মালিক মামলার প্রস্তুতি নিয়েছে বলে জানায়।
সূত্রে জানাগেছে, চকরিয়ার সীমান্তবর্তী লামা ফাইতং ইউনিয়নের ৪নম্বর ওয়ার্ডস্থ খেদারবন ইসলামিক মিশন সম্মুখীন ৩৫৩ নম্বর আর হোল্ডিংয়ের খতিয়ানভুক্ত জায়গায় ওই এলাকার বাসিন্দা মাষ্টার সালাহ উদ্দিন গত এক বছর পূর্বে ওই জায়গায় বেলজিয়াম, আকাশমণিসহ নানা প্রজাতির গাছের চারা রোপন করেন। তার রোপিত বাগানটি কয়েক মাসের মধ্যে সবুজ বনায়নে পরিণত হয়। শনিবার দিবাগত রাতে পূর্ব শত্রুতার জেরে সশস্ত্র একদল দুর্বৃত্ত রাঁতের অাধারে সৃজিত ওই বাগানের অন্তত তিন শতাধিক চারা গাছ কেটে নিধন করেছে দুর্বৃত্তরা। এতে প্রায় দুই লক্ষাধিক টাকা ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবী করেছেন ভুক্তভোগী বাগান মালিক। এ ঘটনার বিষয়টি স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ, ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারকে অবহিত করা হয়েছে।
ভুক্তভোগী সৃজিত বাগানের মালিক মাষ্টার সালাহ উদ্দিন বলেন, ফাইতংয়ের খেদারবন ইসলামিক মিশন সম্মুখীন ৩৫৩ নম্বর আর হোল্ডিংয়ের আমার খতিয়ানভুক্ত জায়গায় বছর খানেক পূর্বে ওই এলাকার কতিপয় ব্যক্তিরা বালি উত্তোলন করেছিল। বালি উত্তোলনে বাঁধা দেয়ার পর থেকে চিহ্নিত ওইসব ব্যক্তিরা আমার পেছনে নানা ধরণের ষড়যন্ত্র করে আসছিল। তিনি আরও বলেন, কারো শত্রুতা থাকলে আমার সাথে রয়েছে। কিন্তু এ চারা গাছের সাথে এ কেমন শত্রুতা! দুর্বৃত্তরা রোপিত বাগানের অন্তত তিন শতাধিক গাছ কেটে নিধন করে এতে আমার প্রায় দুই লক্ষাধিক টাকা ক্ষয়ক্ষতি হয়। এ নিয়ে মামলার প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।
ফাইতং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জালাল আহমদ বলেন, এ ধরণের ঘটনাটি বড়ই মর্মান্তিক। তারপরও বিষয়টি ব্যাপারে খোজ নেওয়া হচ্ছে কে বা কারা এঘটনাটি করছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •