হেলাল উদ্দিন, টেকনাফ :
টেকনাফে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে হাবিব উল্লাহ (৪০) নামের রোহিঙ্গা ডাকাত নিহত হয়েছে। সে রোহিঙ্গা ক্যাম্প-২৬ বসবাসকারী মৃত আলী আহমদের পুত্র। ১৫ সেপ্টেম্বর (রবিবার) মধ্যরাতে শালবাগান পাহাড়ী এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।
এসময় পুলিশের ৩জন সদস্য আহত হয়।
টেকনাফ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ জানান, রবিবার দিবাগত রাতে আটক ডাকাতকে নিয়ে থানা পুলিশের একটি দল শালবাগান পাহাড়ী এলাকায় অভিযানে গেলে স্বশস্ত্র দূবৃর্ত্তরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করে। এতে এসআই সুজিত চন্দ্র দে, এসআই মশিউর রহমান ও কনস্টেবল বেলাল উদ্দিন আহত হয়। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলিবর্ষণ করলে হামলাকারীরা দ্রুত পার্শবর্তী জঙ্গলে পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল হতে ২টি দেশীয় অস্ত্র, ১০ রাউন্ড বুলেটসহ গুলিবিদ্ধ ডাকাত হাবিব উল্লাহকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয়। সেখানে আহত পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসা দেওয়ার পর উন্নত চিকিৎসার জন্য গুলিবিদ্ধ হাবিবুল্লাহকে কক্সবাজার রেফার করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়।
তিনি আরো জানান, অপরদিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত ডাকাতের দেহ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এই ব্যাপারে তদন্ত স্বাপেক্ষে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •