পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ শিক্ষক “মা”

-আবদুল নবী

আমরা পরিবার, সমাজ, সামাজিক প্রতিষ্ঠান ( স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়) ও সকলের কাছ হতে যেসকল জ্ঞান লাভ করি তাই শিক্ষা। শিক্ষার দুটি দিক আছে। ভালো এবং খারাপ দিক। ভালো আর খারাপের সমন্বয়ে জীবন। যে শিক্ষা অর্জনের ফলে সমাজ, দেশ ও দেশের প্রত্যেকটি মানুষের জন্য চিন্তা করা যায়, কাজ করা যায়, অন্যের বিপদে এগিয়ে আসা যায় ইত্যাদি এগুলো হচ্ছে শিক্ষার ভালে দিক। আর এগুলোর মাধ্যমে একজন ব্যক্তি সকলের কাছে প্রিয় হয়ে ওঠে। আবার এই কাজগুলোর বিপরীতে হলে সেটা খারাপ শিক্ষা। যা কারো কাছে গ্রহণযোগ্য নয়। আমরা শিক্ষা গ্রহণ করি শিক্ষক থেকে। অনেকে অনেক শিক্ষক থেকে শিক্ষা অর্জন করি। তবে এই শিক্ষক আমাদেরকে শুধু প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা দেয়। তবে কিছু কিছু শিক্ষক আছেন যারা নিজের সন্তানদের মতো করে প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার পাশাপাশি সামাজিক শিক্ষাও দিয়ে থাকেন। এদের সংখ্যা খুবই নগণ্য।

জীবন চলতে গিয়ে প্রত্যেকে ভালো শিক্ষক খুঁজে। তবে এটা শুধু পড়ালেখা করে সার্টিফিকেট অর্জনের জন্য। কেউ সামাজিক শিক্ষা অর্জনের জন্য ভালো শিক্ষক খুঁজে বলে মনে হয় না। অথচ পৃথিবীর সবচেয়ে ভালো এবং পজিটিভ ও সামাজিক শিক্ষাদাতা হচ্ছেন নিজের গর্ভধারিণী মা। তিনিই একমাত্র শিক্ষক যিনি নিজে শিক্ষিত না হয়েও নিজের সন্তানকে শিক্ষিত মানুষ হিসেবে গড়ে তুলে সঠিক সামাজিক শিক্ষা দিয়ে।

যদি একজন ভালো ও পজিটিভ শিক্ষক খোঁজেন তাহলে আপনার গর্ভধারিণী মায়ের সাথে পুরো পৃথিবীর সকল শিক্ষককে তুলনা করে দেখুন মায়ের মতো কোন শিক্ষক পাওয়া যায় কি না। আমার বিশ্বাস মায়ের মতো শিক্ষক কোথাও পাবেন না।

তাই আগে মায়ের কাছ হতে প্রকৃত শিক্ষা গ্রহণ করুন। আমার মা হয়তো প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা পায় নাই। হয়তো শিক্ষিত না। কিন্তু ঐ মা আমাকে শিক্ষা দেয় বিপদে কিভাবে সকল পরিস্থিতির সাথে যুদ্ধ করতে হয়। কিভাবে অন্যের সাথে কথা বলতে হয়। আরো শিখিয়েছেন যে কিভাবে সামষ্টিক চিন্তা করবো এবং কেনইবা সৎ পথে চলে অন্যায়ের প্রতিবাদ করবো। কিভাবে অন্যের অধিকারে আঘাত না করে অধিকার ফিরিয়ে দিতে হয় সেই শিক্ষা মা দিয়েছে।

এই শিক্ষা কোন শিক্ষক দেয় না। একমাত্র মা দেয়। মায়ের মতো শিক্ষা পৃথিবীর কোন শিক্ষক দিতে পারে বলে আমার মনে হয় না।

আমার মা হয়তো কিছুই জানে না। যার কারণে আমাকে পড়াশোনার কাজে সহযোগিতা করতে পারে নাই। কিন্তু তিনিই একমাত্র মহীয়সী যিনি নিজে না খেয়ে আমাকে খাওয়ায় এবং নিজের মাথায় তেল না দিয়ে সেটা আমাদেরকে দিয়ে সজ্জিত করে স্কুল বা কলেজে পাঠায়। আর শিখায় অন্যের জন্য নিজেকে কিভাবে বিলিয়ে দিতে হয় সেটা।

নিজের সবকিছু অন্যের জন্য বিসর্জন দিতে তিনি শিক্ষা দেয়। এই সার্টিফিকেট ছাড়া শিক্ষক আমাকে বড়লোক হওয়ার কোন শিক্ষা দেয়নি। তিনি সবসময় আমাকে বুঝিয়েছেন আমার যা কিছু আছে তাতে কিভাবে সন্তুষ্ট থাকবো সেটা। আমার বাড়ি পাঁচ তলা নয় বলে আমাকে দুঃখ না পাওয়ার কথা বলেছেন। বলেছেন, “ঐ পাঁচ তলা বাড়ির দিকে না তাকিয়ে আমার চেয়েও যে গরীব তার দিকে লক্ষ্য করতে। তাহলে প্রকৃত বড়লোক মনে হবে নিজেকে।”

অন্যের জীবন বাঁচাতে গিয়ে যদি নিজের জীবন চলেও যায় তবুও ঐ জীবনটাকে রক্ষা করার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করতে বলেছেন। দিনে তিনবেলা খাবার থেকে নিজে না খেয়ে হলেও আহারহীন মুখে খাবার তুলে দেওয়ার শিক্ষা দিয়েছেন। অথচ তিনি নিজেই না খেয়ে আমাদের খাওয়ায় আর নিজে ক্ষুধার যন্ত্রণা নিরবে সহ্য করে। জন্ম থেকে শুরু করে জীবন চলতে সকল সমস্যার একমাত্র সমাধান মা। আমার মা হয়তো নিরক্ষর। কিন্তু একজন মা তার সন্তানকে সেই শিক্ষা দেয় যে শিক্ষা অর্জন করলে সমাজ, দেশ ও দেশের সকলের মঙ্গল হবে। এবং কোন কাজটি করলে অন্যের ক্ষতি হবে। তিনি কখনও সন্তানের অমঙ্গল কামনা করে না।

পৃথিবীর সকলের মা সবচেয়ে ভালো শিক্ষক। মায়ের দেওয়া শিক্ষার মাধ্যমে আমরা সমাজ ও সমাজে সৃষ্ট সমস্যার মোকাবেলা করতে পারি। জীবনকে সুন্দরভাবে পরিচালনা করতে পারি। কিভাবে ভালোকে গ্রহণ ও মন্দকে বর্জন করবো সেটা শিখতে পারি। তাই ভালো শিক্ষক খোঁজার প্রয়োজন নেই। কারণ, পৃথিবীর সবচেয়ে ভালো এবং পজিটিভ শিক্ষক আমার ঘরে আমার জন্য অপেক্ষা করতেছে। তিনি আমার সকল ধরনের সমস্যার সমাধান দেয়। আর দিতে না পারলেও দিক নির্দেশনা দেয় কিভাবে কি করতে হবে সেটা। দোলনায় থাকা অবস্থা থেকে শৈশব, কৈশোরে মা আমাদের যা শিক্ষা দেয় সেগুলো দিয়ে আমরা খবর পর্যন্ত চলে যায়। অথচ আর কোন শিক্ষা এতদূর প্রসারিত নয়। তিনিই শ্রেষ্ঠ শিক্ষক। তিনিই সমাধানের প্রথম দিকনির্দেশনা।

 

লেখকঃ আবদুল নবী, ছাত্র , কক্সবাজার সিটি কলেজ ।

cbn কক্সবাজার নিউজ ডটকম (সিবিএন) এ প্রকাশিত কোন সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।-কক্সবাজার নিউজ ডটকম  

সর্বশেষ সংবাদ

সাতকানিয়া উপজেলায় মোতালেব বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত

সিপিপি শ্রেষ্ঠ স্বেচ্ছাসেবক পুরষ্কার পেলেন মহেশখালী ভাইস চেয়ারম্যান মিনুয়ারা

পেকুয়ায় চালককে জবাই করে টমটম ছিনতাই

বিবর্তন’র প্রবারণা পূর্ণিমা সংখ্যা ২০১৯ এর মোড়ক উন্মোচন

চট্টগ্রামের কোতোয়ালিতে ৩০০ পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার ১

‘কেয়ার’ এর আয়োজনে পালিত হল আন্তর্জাতিক দূর্যোগ প্রশমন দিবস-২০১৯

ঘুমধুম ইউনিয়নে জাহাঙ্গীর বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত

ফেনীতে ৬৩ লাখ টাকার ভারতীয় ট্যাবলেট জব্দ

ডুলাহাজারায় অবৈধ সার বিক্রয়ের মহোৎসব

অসাম্প্রদায়িক চেতনায় অদম্য গতিতে কক্সবাজার এগিয়ে যাচ্ছে : ডিসি কামাল হোসেন

কক্সবাজার সদর থানা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার- ৬

আবরার স্মরণে কক্সবাজার সরকারি কলেজে শোক র‍্যালী ও মানববন্ধন

চকরিয়ায় আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভায় যানজট, ছিনতাই ও মাদকমুক্ত করার সিদ্ধান্ত

নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুমে ভোট কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলা: নিহত ২ (আপডেট)

ফোর মার্ডার : পুলক বড়ুয়াকে আইও নিয়োগ

পেকুয়ায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার

সোনাইছড়িতে এ্যানিং মার্মা বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত

নাইক্ষ্যংছড়ি সদরে আবছার বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত

রামু সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির উর্বর ভূমি : কল্প জাহাজ ভাসা উৎসবে এমপি কমল

প্রেমিকের সাথে বিয়ে না দেয়ায় আলীকদমে তরুণীর আত্মহত্যা