মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

রাষ্ট্র ও স্থানীয় জনগোষ্ঠীকে উপকার করার চেষ্টা করবেন, উপকার করতে না পারলে অন্ততঃ ক্ষতি হওয়ার মতো কোন কাজ করবেন না। বুধবার ১১ সেপ্টেম্বর উখিয়া উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্পে কর্মরত এনজিও ‘HELP’ এর স্বাস্থ্য বিষয়ক প্রজেক্ট ইন্সপেকশন অবহিতকরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উখিয়ার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ ফখরুল ইসলাম একথা বলেন। সভায় উপস্থিত থাকা উখিয়ার গণমাধ্যম কর্মী নুর মোহাম্মদ সিকদার সিবিএন-কে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এসি (ল্যান্ড) মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম সকল এনজিও-র উদ্দেশ্যে আরো বলেন-যেকোন প্রকল্প বাস্তবায়নের আগে উপজেলা প্রশাসনকে অবশ্যই অবহিত করে অনুমতি নিতে হবে। কেউ অবহিত না করে প্রকল্প বাস্তবায়নের চেষ্টা করলে তা কোন অবস্থাতেই বরদাশত করা হবেনা। তাদেরকে কঠোর আইনের আওতায় আনা হবে। কেউ এ বিষয়ে বাড়াবাড়ি করলে তাদেরও প্রশাসনিকভাবে দমন করা হবে। তিনি বলেন, রোহিঙ্গা শরনার্থীদের প্রত্যাবাসনের পূর্ব পর্যন্ত আপনারা সেবা দিয়ে যান। তবে রাষ্ট্রের স্বার্থকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে স্থানীয় জনগোষ্ঠীকে নিরাপদ রেখেই তা করতে হবে। স্থানীয় জনগোষ্ঠী ক্ষতিগ্রস্ত হয়, এমন পরিকল্পনা ও কাজ থেকে সকল এনজিওকে সম্পূর্ণ বিরত থাকতে তিনি আহবান জানান।

এনজিও হেলপ এর উপদেষ্টা মুক্তিযোদ্বা আলি আকবর বাঙ্গালী’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত সভায় আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার রায়হানুল ইসলাম, এনজিও হেলপ এর কর্মকর্তা সাঈদী, প্রোগ্রাম ম্যানেজার মকসুদ প্রমুখ। সভায় উখিয়া উপজেলা সমবায় অফিসার কবির আহমদ, গণমাধ্যম কর্মী, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, পেশাজীবীরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় উখিয়ার ইউএনও মোঃ নিকারুজ্জামান প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকার কথা থাকলেও তিনি দাপ্তরিক কারণে অন্য জায়গায় ব্যস্ত থাকায় সভায় উপস্থিত থাকতে পারেননি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •