পর্যটনবান্ধব দেশের তালিকায় পাঁচ ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ

সিবিএন ডেস্ক:

বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের ২০১৯ সালের ট্রাভেল অ্যান্ড ট্যুরিজম কম্পিটিটিভ রিপোর্টে ভ্রমণ ও পর্যটনে সেরা দেশগুলোর তালিকা প্রকাশিত হলো। এতে পাঁচ ধাপ এগিয়ে ১২০ নম্বরে আছে বাংলাদেশ। এবারই প্রথম এই র‌্যাংকিংয়ে এত বড় সাফল্য পেলো দক্ষিণ এশিয়ার দেশটি।

বিমান পরিবহন অবকাঠামো, নিরাপত্তা, সংস্কৃতি, বাসস্থান, টাকার মান ও স্থিতিশীল ভ্রমণের সুযোগসহ ৯০টি মানদণ্ড বিবেচনা করে ১৪০ দেশের র‌্যাংকিং করা হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আঞ্চলিক বিশ্লেষণে এশিয়া-প্যাসিফিকে নিরাপত্তা ও সুরক্ষায় সবচেয়ে বেশি উন্নতি করেছে বাংলাদেশ। নিরাপত্তা ও সুরক্ষা বৃদ্ধির ফলে ভ্রমণের জন্য বাংলাদেশ বেশ সুবিধাজনক বলে উল্লেখ করা হয়েছে প্রতিবেদনে।

প্রাকৃতিক সম্পদ ও সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের সুবাদে বাংলাদেশে বিদেশি পর্যটকদের সংখ্যা দ্রুত বৃদ্ধি পাবে বলে আশা করা হয়েছে বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের প্রতিবেদনে। ফলে এখানকার পর্যটন শিল্পে উল্লেখযোগ্য উন্নতির আভাস রয়েছে।

তবে ট্রাভেল অ্যান্ড ট্যুরিজম কম্পিটিটিভ রিপোর্ট অনুযায়ী– অনুন্নত পর্যটন সেবা অবকাঠামো, বায়ুদূষণ ও জলাবদ্ধতা বাংলাদেশের সামগ্রিক আকর্ষণকে ম্রিয়মাণ করে রাখে। এসব কারণে দেশের প্রাকৃতিক পর্যটন হুমকির মুখে পড়ে। বন্যপ্রাণীর অভয়ারণ্য বৃদ্ধি ও ক্রমবর্ধমান বনভূমি হ্রাস করার মাধ্যমে বাংলাদেশের প্রাকৃতিক সম্পদ পর্যটনের বিকাশে সুফল বয়ে আনতে পারে।

তালিকায় সার্কভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে ভারত (৩৪), শ্রীলঙ্কা (৭৭), নেপাল (১০২) ওপরের দিকে। বাংলাদেশের নিচে আছে পাকিস্তান (১২১)।

এবারের বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের আলোচনার টেবিলে পর্যটনের চারটি দিক গুরুত্ব পেয়েছে। এগুলো হলো প্রাকৃতিক ও সাংস্কৃতিক সম্পদ, বিমান পরিবহন পরিকাঠামো, জাতীয় ভ্রমণ ও পর্যটন নীতি এবং উপযুক্ত পরিবেশ (নিরাপত্তা থেকে শুরু করে শ্রমবাজারের স্বাস্থ্যবিধি)।

র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষে আছে ইউরোপের দেশ স্পেন। দুই থেকে দশে স্থান পেয়েছে যথাক্রমে ফ্রান্স, জার্মানি, জাপান, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া, ইতালি, কানাডা ও সুইজারল্যান্ড।

সর্বশেষ সংবাদ

২য় বার বিপিএম পদক পাওয়ায় এসপি মাসুদ হোসেনকে মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সংবর্ধনা

কক্সবাজার আসলেন ভূমিমন্ত্রী, ‘অ্যাকশন’ দেখার অপেক্ষায় ভুক্তভোগীরা

রামুতে সত্যপ্রিয় মহাথের’র অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া’র সম্প্রীতি মেলা উদ্বোধন

বাঁচতে চায় ক্যান্সার আক্রান্ত তিন সন্তানের মা ‘জাহানারা’

ঈদগাঁও বাজার কমিটির নির্বাচনে প্রার্থীদের মুক্ত সংলাপ

ঈদগাঁহে ‘৯০ ব্যাচের বহিস্কৃতরা কথিত মিলনমেলা ষড়যন্ত্রে মত্ত’র অভিযোগ

কক্সবাজার ইউনাইটেড স্টুডেন্ট’স ক্লাব শহর কমিটি অনুমোদন

কক্সবাজার সিটি প্রেসক্লাবের সাধারণ সভা ২৯ ফেব্রুয়ারী

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বেপরোয়া দালাল

একুশের দিনে কাপড়ের তৈরী শহীদ বেদিতে শ্রদ্ধা নিবেদন

ঘুষ দৌরাত্ম্য অভিযুক্ত ৩ সার্ভেয়ার চাকুরী থেকে বরখাস্ত হচ্ছেন রোববার

ব্রাকের ম্যালেরিয়া রোগ নির্মূল প্রকল্পের নামে অর্থ অপচয়ের অভিযোগ

ভাষার জন্য সংগ্রাম করে জীবন দিয়েছেন এমন নজীর পৃথিবীর কোথাও নেই

চকরিয়ায় উগ্রবাদ ও সহিংসতা নিরসনে প্রশিক্ষণ

অসাম্পদায়িক বাংলাদেশ গড়াই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার লক্ষ্য

চকরিয়ায় বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে যুবকের মৃত্যু

ডুলাহাজারায় শালিসি বৈঠকে হামলা: মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে দু’সহোদর

সাতকানিয়া-লোহাগাড়ার সমিতির আজীবন সম্মাননাপত্র বিতরণ ও শোকরানা সভা

শেখ হাসিনা ছাত্রী নিবাসে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদানে দীর্ঘসূত্রিতা!

লবণের ন্যায্যমূল্য নিয়ে সরকার বড়ই উদাসীন, ভূমিকাও রহস্যজনক- শাহজাহান চৌধুরী