মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্পে কর্মরত সোসাইটি ফর হেলথ এক্সটেনশন এন্ড ডেভেলপমেন্ট-SHED (শেড) এর উখিয়া উপজেলা সদরের মালভিটা পাড়া অফিস কাম গোডাউন থেকে নিড়ানি, দা, করাত, লাটি ও অন্যান্য সামগ্রী উদ্ধার করা হয়। উখিয়া উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফখরুল ইসলাম গত বৃহস্পতিবার ৫ সেপ্টেম্বর অভিযান চালিয়ে চালিয়ে এসব মালামাল উদ্ধার করেন। এরপর উদ্ধারকৃত মালামাল গুলোর প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখানোর পর উখিয়ার ইউএনও মোঃ নিকারুজ্জামান মালামাল গুলো এনজিও শেডকে ফেরত দিয়ে দেন। এনিয়ে শেড এর পুষ্টি কার্যক্রমে চাকুরিরত ‘নাসরিন ফাতেমা পপি’ নামে একজন নার্স তার নিজস্ব ফেসবুকে গণমাধ্যম ও গণমাধ্যম কর্মীদের উদ্দ্যেশ করে বৃহস্পতিবার ৫ সেপ্টেম্বর রাত ১১ টা ১৩ মিনিটে একটি কুরুচিপূর্ণ স্ট্যাটাস দেয়। এ স্ট্যাটাস নিয়ে গণমাধ্যম কর্মী, সুশীল সমাজ সহ সর্বত্র নিন্দার ঝড় উঠে। বিতর্কিত নাসরিন ফাতেমা পপি’র বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জোরালো দাবি উঠে। নাহয়, এনজিও শেড’কেই বর্জনের হুমকি আসে। এ অবস্থায় নাসরিন ফাতেমা পপি তার ফেসবুকে উক্ত কুরুচিপূর্ণ স্ট্যাটাস দেয়ার ১৬ ঘন্টার মধ্যেই শুক্রবার ৬ সেপ্টেম্বর বিকেল সোয়া ৪ টার দিকে এনজিও শেড কর্তৃপক্ষ নাসরিন ফাতেমা পপি’কে সাময়িক চাকুরিচ্যুত করে দুঃখ প্রকাশ করে সকল সাংবাদিকদের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন। এনজিও শেড এর নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ ওমরা স্বাক্ষরিত এক ‘জরুরী বার্তা’ শিরোনামে প্রদত্ত বিবৃতিতে বলা হয় স্ট্যাটাসটা সাংবাদিকদের জন্য সম্মানহানিকর ও শেড কর্মী ব্যবস্থাপনার নীতিবিরুদ্ধ কাজ। তাই এ ঘটনায় একটি তদন্ত কমিটি গঠন ও তদন্ত কমিটিকে আগামী ৭ দিনের মধ্যে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে। তদন্ত কমিটির রিপোর্টের উপর ভিত্তি করে নাসরিন ফাতেমা পপি’র বিষয়ে চূড়ান্ত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জরুরী বার্তায় উল্লেখ করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •