আন্তর্জাতিক ডেস্ক
ব্রিটিশ লেখিকা জে কে রাউলিং রচিত কাল্পনিক উপন্যাস হ্যারি পটার সিরিজের সাত খণ্ডের সব বই নিষিদ্ধ করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি স্কুল কর্তৃপক্ষ। স্কুলের লাইব্রেরি থেকে হ্যারি পটারের সিরিজের বই সরিয়ে ফেলা হয়েছে।

মার্কিন একটি দৈনিক বলছে, হ্যারি পটার সিরিজের বইগুলো শিক্ষার্থীদের মনে দুষ্ট আত্মার প্রভাব ফেলবে এমন আশঙ্কায় টেনেসির ন্যাসভিলের ক্যাথলিক স্কুল কর্তৃপক্ষ বইগুলো লাইব্রেরি থেকে সরানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

জে কে রাওলিংয়ের অত্যন্ত জনপ্রিয় হ্যারি পটার সিরিজের এসব বই। রোমান ক্যাথলিক প্যারিস স্কুলের রেভারেন্ড ড্যান রিহিল বলেছেন, হ্যারি পটার সিরিজের বইগুলোতে ভালো-মন্দ উভয় ধরনের ম্যাজিকের কথা রয়েছে; যেগুলো সত্য নয়, বরং ছলনা। তবে এসব বইয়ে যেসব অভিশাপ দেয়া হয়েছে, সেগুলো সত্য। যে কারণে বইগুলো শিক্ষার্থীরা পড়লে তাদের মনে নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে।

বই নিষিদ্ধ করার আগে স্কুল কর্তৃপক্ষ দেশ-বিদেশের অনেক পরামর্শকের সঙ্গে কথা বলেছে। তারাই হ্যারি পটার সিরিজের সব বই লাইব্রেরি থেকে সরানোর পরামর্শ দিয়েছেন।

উইকিপিডিয়া বলছে, এই সিরিজের উপন্যাসগুলোতে জাদুকরদের পৃথিবীর কথা বলা হয়েছে এবং কাহিনী আবর্তিত হয়েছে হ্যারি পটার নামের এক কিশোর জাদুকরকে ঘিরে; যে তার প্রিয় বন্ধু রন উইজলি ও হারমায়নি গ্রেঞ্জারকে সাথে নিয়ে নানা ধরনের অ্যাডভেঞ্চারে অংশ নেয়।

কাহিনীর বেশিরভাগ ঘটনা ঘটেছে হগওয়ার্টস স্কুল অব উইচক্র্যাফট এন্ড উইজার্ডরিতে। মূল চরিত্র হ্যারি পটারের বড় হওয়ার পথে যেসব ঘটনা ঘটে, তার শিক্ষাজীবন, সম্পর্ক ও অ্যাডভেঞ্চার নিয়েই কাহিনী রচিত হয়েছে। আবার বইটিতে মানুষের বন্ধুত্ব, উচ্চাশা, ইচ্ছা, গর্ব, সাহস, ভালবাসা, মৃত্যু প্রভৃতিকে জাদুর দুনিয়ার জটিল ইতিহাস, বৈচিত্র্যপূর্ণ অধিবাসী, অনন্য সংস্কৃতি ও সমাজ প্রভৃতির দৃষ্টিকোণ থেকে বর্ণনা করা হয়েছে।

এর কাহিনী মূলত কালো-যাদুকর লর্ড ভলডেমর্ট, যে জাদু সাম্রাজ্যে প্রতিপত্তি লাভের উদ্দেশ্যে হ্যারির বাবা-মাকে হত্যা করেছিল ও তার চিরশত্রু হ্যারি পটারকে কেন্দ্র করেই আবর্তিত।

১৯৯৭ সালে হ্যারি পটার অ্যান্ড দ্য ফিলোসফার্স স্টোন (আমেরিকাতে হ্যারি পটার অ্যান্ড সরসারার্স স্টোন নামে প্রকাশিত) নামে এই সিরিজের প্রথম বই প্রকাশিত হয়।

প্রকাশিত হওয়ার পর থেকেই এই সিরিজের বইগুলো রচনার শৈল্পিক উৎকর্ষের জন্য সমালোচকদের কাছে প্রশংসিত হয়েছে এবং সারাবিশ্বের পাঠকমহলে তুমুল জনপ্রিয়তা ও ব্যবসায়িক সাফল্য অর্জন করেছে। হ্যারি পটার সিরিজের বইগুলোকে ভিত্তি করে আটটি চলচ্চিত্রও নির্মিত হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •