মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

শরনার্থী ত্রান ও প্রত্যাবাসন কমিশনারের কার্যালয়ে আরো ২ জন কর্মকর্তা নিয়োগ দেয়া হয়েছে। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) উপ সচিব মোঃ খলিলুর রহমান খান (৭৭০১) এবং একই মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব (ওএসডি-ক্যাডার বর্হিভূত) মোঃ আহসান হাবিব-(১১২০০)। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রেষন-১ অধিশাখার উপসচিব মুহাম্মদ আবদুল লতিফ কর্তৃক ২ সেপ্টেম্বর স্বাক্ষরিত ৭০৫ এবং ৭০৬ নম্বর স্মারকে পৃথক দু’টি প্রজ্ঞাপন জারির মাধমে এ নিয়োগ দেয়া হয়। এর আগে একইদিন শরনার্থী ত্রান ও প্রত্যাবাসন কমিশনার (আরআরআরসি) মোহাম্মদ আবুল কালাম এনডিসি (অতিরিক্ত সচিব-৪১৮৩) কে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) হিসাবে বদলী করে বস্ত্র মন্ত্রণালয়য়ে তাঁর চাকুরী ন্যাস্ত করা হয়েছে। মোহাম্মদ আবুল কালাম এনডিসি (অতিরিক্ত সচিব) কে আগামী ৫ সেপ্টেম্বরের মধ্য নতুন কর্মস্থলে যোগ দিতে এবং একইদিন অপরাহ্ন হতে তিনি স্টেন্ড রিলিজ হিসাবে গণ্য হয়ে আপনাআপনি কর্মস্থল হতে অবমুক্ত হবেন বলে প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন নিয়োগ-১ অধিশাখার উপসচিব মুহাম্মদ আবদুল লতিফ কর্তৃক সোমবার ২ সেপ্টেম্বর স্বাক্ষরিত ৫৪৯ নম্বর স্মারকে এক প্রজ্ঞাপন জারির মাধমে তাঁকে ওএসডি করে এ বদলী করা হয়। অপরদিকে, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের পরিচালক (যুগ্ম সচিব) মোঃ মাহবুব আলম তালুকদার (৬২৮৪) কে শরনার্থী ত্রান ও প্রত্যাবাসন কমিশনার (আরআরআরসি) হিসাবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। একইভাবে মোঃ মাহবুব আলম তালুকদার’কে আগামী ৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে নতুন কর্মস্থলে যোগ দিতে বলা হয়েছে। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন নিয়োগ-১ অধিশাখার উপসচিব মুহাম্মদ আবদুল লতিফ কর্তৃক সোমবার ২ সেপ্টেম্বর স্বাক্ষরিত ৭০৪ নম্বর স্মারকে এক প্রজ্ঞাপন জারির মাধমে মোঃ মাহবুব আলম তালুকদারকে এ নিয়োগ প্রদান করা হয়।
এছাড়া একইদিন রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্পের আরো দু’জন ক্যাম্প ইনচার্জকে বদলী করা হয়। তারা হলেন -উখিয়ার কুতুপালং ৪ ও ৫ নম্বর ক্যাম্পের ইনচার্জ শামিমুল হক পাভেল (উপসচিব-১৫৮১০) এবং টেকনাফের নয়াপাড়া ১৪ ও ১৫ নম্বর ক্যাম্পের ইনচার্জ আবদুল ওয়াহাব রাশেদ (সিনিয়র সহকারী সচিব-১৬২৩৫)। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রেষন-১ অধিশাখার উপসচিব মুহাম্মদ আবদুল লতিফ কর্তৃক গত ১ সেপ্টেম্বর স্বাক্ষরিত ৭০১ এবং ৭০২ নম্বর স্মারকে এ পৃথক দু’টি বদলী প্রজ্ঞাপন জারির মাধমে এ বদলী করা হয়। শামিমুল হক পাভেল’কে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের একটি রপ্তানি প্রকল্পের উপ পরিচালক এবং আবদুল ওয়াহাব রাশেদ’কে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপ আনুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর আওতাধীন মৌলিক স্বাক্ষরতা প্রকল্পের উপ পরিচালক হিসাবে বদলী করা হয়ছে। বদলীকৃত সিআইসি শামিমুল হক পাভেলের বিরুদ্ধে গত ২৫ আগস্ট অনুষ্ঠিত রোহিঙ্গা শরনার্থী সমাবেশের অনুমতি দেয়ার অভিযোগ সহ বিভিন্ন অভিযোগ উঠেছে। একইদিন বিতর্কিত এসিআইসি মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলমকেও বদলী করা হয়েছে। এনিয়ে রোহিঙ্গা প্রশাসনের মোট ৪ জন কর্মকর্তাকে আরআরআরসি অফিস থেকে বদলি এবং ৩ জন নতুন কর্মকর্তাকে আরআরআরসি অফিসে নিয়োগ দেয়া হলো। প্রসঙ্গত, গত নভেম্বর মাসে ও গত ২২ আগস্ট পর পর দু’বার মিয়ানমারে রোহিঙ্গা শরনার্থী প্রত্যাবাসনের চরম ব্যর্থতা ও গত ২৫ আগস্ট রোহিঙ্গা শরনার্থীদের মহাসমাবেশ করার বিষয়ে তুমুল বিতর্কের মধ্যে পড়েন বদলী হওয়া এসব কর্মকর্তা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •