সংবাদদাতাঃ
কক্সবাজার পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের বৈদ্যঘোনায় টয়লেটের ময়লা উম্মুক্ত জায়গায় ফেলার অভিযোগ উঠেছে। এতে মারাত্মকভাবে পরিবেশ দূষণ হচ্ছে বলে জানা গেছে।
এমন অবস্থা থেকে পরিত্রাণ চেয়ে জেলা প্রশাসক, পৌর মেয়র, সিভিল সার্জন, সদর থানার ওসি, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক, ওয়ার্ড কাউন্সিলরসহ সংশ্লিষ্টদের কাছে লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে।
স্থানীয় সৎসঙ্গ আশ্রম গলির বনবীর পালের স্ত্রী শিপ্রা রানী পাল অভিযোগ করেছেন, তার বাড়ির সামনে টয়লেটের ময়লা উন্মুক্তভাবে ফেলার কারণে মারাত্মক দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়ছে। দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে পথচারীদের। দুর্গন্ধযুক্ত বাতাস ঢুকে পড়ছে ঘরবাড়িতে। তাই এলাকাবাসী রাতে ঘুমাতে পারেনা। প্রতিবেশী সোনা বালা শীল এই ঘটনা ঘটাচ্ছে বলে অভিযোগ শিপ্রা রানী পালের।
প্রতিবাদ করলে উল্টো এলাকাবাসীকে হুমকি-ধমকি দেয় বলে সোনা বালা শীলের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে অনুরোধ করেছেন শিপ্রা রানী পাল। এর আগে তিনি গত ১৫ মে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় ৮ জনের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযুক্তরা হলো- সোহাগ শীল, জুবলি শীল, সুভাষ শীল, বাবু শীল, রিপন শীল, কাজল শীল, সোনা বালা ও প্রকাশ দাতু।
স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাহেদা বেগমের কাছে বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি খোঁজখবর নিয়ে ব্যবস্থা নেবেন বলে জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •