অনলাইন ডেস্ক : বিতর্কিত বক্তব্যের মাধ্যমে ধর্মীয় অনুভূতি ও মূল্যবোধের ওপর আঘাত হানার অভিযোগে মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন আত-তাহেরীর বিরুদ্ধে মামলার আবেদন করা হয়েছে। রবিবার বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনাল আসসামছ জগলুল হোসেনের আদালতে পিটিশন মামলার আবেদন জমা দেন ঢাকা আইনজীবী সমিতির কার্যকরী সদস্য মো. ইব্রাহিম খলিল।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, ইসলাম ধর্মের পথপ্রদর্শক হজরত মুহম্মদ (সা.) এর আদর্শ এবং পবিত্র কোরআন ওয়াজ মাহফিলের মধ্যে নাচ-গান সমর্থন করে না। ইসলামের রীতি অনুযায়ী আসামির কর্মকাণ্ড মুনাফেকির শামিল।

মামলার বাদী ইব্রাহিম খলিল বলেন, ‘বসেন বসেন বইসা যান’, ‘ঢেলে দেই’-এসব বাক্য ওয়াজে ব্যবহার করেন তাহেরী। যা সম্পূর্ণ অশ্লীল। এছাড়া এক ব্যক্তির উক্তি দিয়ে তার বিড়ি খাওয়ার দোয়াটিও ইসলামের কোথাও নেই। তার এসব বক্তব্যে ইসলাম ধর্মকে ব্যঙ্গ ও অবমাননা করা হয়েছে।

মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন আত-তাহেরী ‘দাওয়াতে ঈমানি বাংলাদেশ’ নামে একটি সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান। তিনি বিভিন্ন ওয়াজে বিতর্কিত বক্তব্য দিয়ে আলোচনায় আসেন। তার বক্তব্য নিয়ে উঠে সমালোচনার ঝড়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাহেরীর সে সব বক্তব্যের অংশ ভাইরাল হয়।

অনেকে অভিযোগ করে বলেন, তাহেরীর বক্তব্যে অশ্লীল ও ধর্মীয় অনুভূতি আঘাত হানে এমন শব্দ ব্যবহার করা হয়। এছাড়া তারকাদের ব্যঙ্গ করেও বক্তব্য দিতে দেখা যায়। এমনকি ওয়াজে মাহফিলে শিশুদের সঙ্গেও ‘খারাপ’ আচরণ করতে দেখা যায়।-ইত্তেফাক

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •