বিশেষ সংবাদদাতা:
রোহিঙ্গাদের কারণে টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যংয়ে মোবাইল নেটওয়ার্ক সমস্যা প্রকট আকার ধারণ করেছে। সঠিকভাবে কথা বলা যায়না। কল কলতে গেলেই কলড্রপ হয়ে যায়। কেউ কল করলেও বুঝা যায়নাা। বিশেষ করে রবি ও গ্রামীণ ফোনে সমস্যা দেখা দিয়েছে। এ নিয়ে স্থানীয় বাসিন্দারা চরম ভোগান্তিতে রয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে।
হোয়াইক্যং ইউনিয়নের স্টেশন থেকে পশ্চিম দিকে ৪ নং ওয়ার্ডের দৈঙ্গাকাটা, লাতরি খোলা, ও লম্বাঘোনাসহ আশপাশের ৬/৭টি গ্রামের ৬ হাজার জনসাধারণের বসবাস। সম্প্রতি ওই এলাকায় মোবাইল নেটওয়ার্ক সমস্যায় তাদের দৈনন্দিন কার্যক্রম ও ব্যবসায়িক কাজে সমস্যা হচ্ছে বলে জানাগেছে।
খবর নিয়ে জানা গেছে, হোয়াইক্যং স্টেশনে রবি ও গ্রামীণ মোবাইল অপারেটর কোম্পানির টাওয়ার রয়েছে। দীর্ঘদিন সেই টাওয়ার থেকে ওই এলাকায় মোবাইল নেটওয়ার্ক পাওয়া যেতো। কিন্তু গত ৫/৬ মাস থেকে দুইটা কোম্পানিরই নেটওয়ার্ক খুবই বাজে হয়ে গেছে।
অভিযোগ রয়েছে, সম্প্রতি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অতিরিক্ত মোবাইল সিম ব্যবহার করার কারণে ওই এলাকায় নেটওয়ার্কের এ অবস্থা হয়েছে। এলাকার জনসাধারণের দাবী ওই এলাকায় টাওয়ার বসিয়ে তাদেরকে স্বাভাবিকভাবে মোবাইল নেটওয়ার্ক পাওয়ার ব্যবস্থা করেদেয়া হউক।
এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে এলাকার প্রবীণ সমাজ সেবক সাবেক মেম্বার আলহাজ্ব হাসেম মেম্বার জানান, গত ৫/৬ মাস থেকে ওই এলাকায় মোবাইল নেটওয়ার্ক বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। তিনি জানান, সম্ভবত রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অতিরিক্ত সিম ব্যবহারের কারণে সমস্যাটা হতে পারে। এছাড়াও এলাকার নিরাপত্তার জন্য মোবাইল নেটওয়ার্ক স্বাভাবিক থাকা খুবই জরুরী।
তিনি এবিষয়ে রবি ও গ্রামীণ অপারেটর কোম্পানির সংশ্লিষ্টদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •