মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে এখন পরিবর্তনের হাওয়া বইতে শুরু করেছে। সৎ, দক্ষ ও পেশাদার সদস্যদের যথার্থ মূল্যায়ন ও গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। বাহিনীকে ক্রমাগত আধুনিকায়ন করা হচ্ছে। পুলিশ বাহিনীর সদস্যদের সুযোগ-সুবিধা বাড়ানো হয়েছে। জাতিসংঘের শান্তি মিশনে পুলিশের সদস্যদের নিয়মিত অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে। বিশ্বে এখন সুনামের সাথে পরিচিত একটি বাহিনীর নাম ‘বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনী’। এসব কিছু মিলিয়ে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে এখন সামগ্রিক পরিবর্তন শুরু হয়েছে। সে পরির্বতনের হাওয়া সারা দেশব্যাপী বইছে। এই পরিবর্তন ও মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় পুলিশ বাহিনীর সদস্য নিজেদেরকে গড়ে তুলতে হবে।
সোমবার ২৬ আগস্ট সকালে কক্সবাজার জেলা পুলিশ লাইন্সে কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এ.বি.এম মাসুদ হোসেন বিপিএম কক্সবাজার জেলা পুলিশের জুলাই মাসের কল্যাণ সভায় সভাপতির বক্তব্যে জেলা পুলিশ সদস্যদের প্রতি এ আহ্বান জানান। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) রেজওয়ান আহমেদ এর নান্দনিক সঞ্চালনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোহাম্মদ ইকবাল হোসাইন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (উখিয়া সার্কেল) নিহাদ আদনান তাইয়ান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আদিবুল ইসলাম, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (চকরিয়া সার্কেল) কাজী মতিউল হক, সহকারী পুলিশ সুপার (মহেশখালী সার্কেল) রতন কুমার দাশ গুপ্ত, সহকারী পুলিশ সুপার (ডিএসবি) শহিদুল ইসলাম, সহকারী পুলিশ সুপার (ট্রাফিক বিভাগ) বাবুল চন্দ্র বণিক, জেলার আওতাধীন সকল থানার অফিসার ইনচার্জসহ জেলার অন্যান্য পুলিশ কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ সভায় উপস্থিত ছিলেন। উক্ত কল্যাণ সভায় জুলাই মাসে ভাল কাজে কৃতিত্বের জন্য বিভিন্ন ক্যাটাগরি মধ্যে শ্রেষ্ঠ সার্কেল (সদর) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আদিবুল ইসলাম, শ্রেষ্ঠ থানা হিসাবে টেকনাফ মডেল থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ বিপিএম (বার), শ্রেষ্ঠ এসআই রামু থানার মামুন ইসলাম, শ্রেষ্ঠ অস্ত্র উদ্ধারকারী, শ্রেষ্ঠ মাদক উদ্বারকারী ও শ্রেষ্ঠ ওয়ারেন্ট তামিলকারী মহেশখালী থানার এসআই আনিস উদ্দিন ও মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর সহ মোট ২৮ জন পুলিশ সদস্য ও মাতারবাড়ি ইউনিয়নের চৌকিদার বেলাল উদ্দিন সহ ৮ জন গ্রাম পুলিশ সদস্যকে অর্থ পুরষ্কার ও সম্মাননা সনদ প্রদান করা হয়। এছাড়া জেলা বিশেষ শাখা (ডিএসবি) ও রিজার্ভ অফিসের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণকে বিশেষ পুরষ্কার প্রদান করা হয়। পুলিশ সুপার এ.বি.এম মাসুদ হোসেন বিপিএম তাঁর বক্তব্যে গত জুলাই মাসে জেলার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকায় সভায় উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। একইদিন বেলা ১২ টার দিকে কক্সবাজার জেলার গত জুলাই মাসের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •