সংবাদদাতা :

পেকুয়ায় দন্ত চিকিৎসক শফিকুর রহমান ও তার ভাই ইসলামী ব্যাংক চট্টগ্রাম বহদ্দারহাট শাখার সিনিয়র কর্মকর্তা মনিরুল ইসলামসহ ওই পরিবারের সদস্যদের কুপিয়ে জখমের ঘটনায় মানববন্ধন হয়েছে। মানববন্ধনে পেকুয়ার সর্বস্তরের লোকজন, ব্যবসায়ী ও পথচারীরা শামিল হয়েছেন। ২৫ আগষ্ট (রবিবার) বিকেল ৪ টার দিকে পেকুয়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের কলেজ গেইট চৌমুহনী প্রেস ক্লাব সংলগ্ন মগনামা-বানিয়ারছড়া সড়কে ওই মানববন্ধন অনুষ্টিত হয়েছে। সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমুলক শাস্তিসহ চিকিৎসক শফিকুর রহমান ও এ পরিবারের সদস্যদের উপর বর্বর হামলাকারীদের বিরুদ্ধে এ মানববন্ধন পেকুয়ায় হয়েছে। পৃথক ৩ টি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ওই মানববন্ধনের উদ্যোক্তা। সর্বস্তরের শিলখালী বাসীর পক্ষে সড়কে ব্যানার নিয়ে গ্রামে লোকজন চৌমুহনীতে মানববন্ধনে অংশ নেয়। একইভাবে চিকিৎসককে হামলার দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবীতে সর্বস্তরের পেকুয়াবাসীর পক্ষে পৃথক ব্যানার নিয়ে সড়কে একই স্থানে মানব বন্ধনে অংশ নিয়েছেন। পেকুয়া ব্লাড ডোনার’স ফোরাম, স্বেচ্ছাসেবী ও মানবতাবাদী ওই সংগঠনটিও সড়কে পৃথক ব্যানার নিয়ে অংশ নিয়েছেন। রক্তদান ওই সংগঠনের উদ্যোক্তারা জানায়, এ হামলা অত্যন্ত ন্যাক্কারজনক। চিকিৎসক ও তার ভাই ব্যাংক কর্মকর্তাকে নিষ্টুরভাবে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। আমরা এর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও জড়িতদের গ্রেফতার দাবী করছি। প্রসঙ্গত ২৪ আগষ্ট শনিবার শিলখালী ইউনিয়নের হাজিরঘোনা গ্রামে দু’পক্ষের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। এ সময় প্রতিপক্ষের হামলায় হাজিরঘোনা এলাকার মৃত নুরুল হুদার ছেলে পেকুয়া নুর ডেন্টাল কেয়ারের চিকিৎসক শফিকুর রহমান ও তার ভাই ব্যাংক কর্মকর্তা মনিরুল ইসলামসহ ৪ জন সদস্য জখম হয়েছে। পেকুয়া থানায় ২৫ আগষ্ট এ সংক্রান্ত বিষয়ে মামলা রুজু হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •