লোহাগাড়া প্রতিনিধি:

লোহাগাড়া উপজেলার পদুয়া মুন্সী মুরা এলাকায় শনিবার (২৪ আগস্ট) দুপুরে মোরশিদা আক্তার(২৫) নামের তিন সন্তানের জননী ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে বলে সংবাদ পাওয়া গেছে। সে ওই এলাকার মো: রফিক আহমদের কন্যা।

নিহতের ভাই মো: রুবেল বলেন, দুপুরে সবাই যখন বাড়িতে ভাত খাচ্ছিল ওই সময় মোরশিদা বাড়ির রুমের ভেতর প্রবেশ করে নিজের শাড়ি বাড়ির ছাদের গাছের সাথে বেঁধে গলায় প্যাচিয়ে আত্মহত্যারর চেষ্টা করে। জানতে পেরে ফাঁশিতে ঝুলে থাকাবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে সে মারা যায়।

জানা যায়, নিহত মোরশিদার সাথে সাতকানিয়া উপজেলার ঢেমশা দক্ষিণ মরফল মরিচ্চা পাড়া এলাকার মো: সেলিমের সাথে ২০১৪ সনে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। তাদের সংসারে ৩ জন কন্যা সন্তান রয়েছে। ১ কন্যা সন্তানকে অন্যজনেরর হাতে দত্ত্বক দিয়ে দিলে সংসারে নেমে আসে কলহ।

নিহতের পিতা রফিক আহমদ বলেন, পারিবারিক কলহের কারণে সবার অজান্তে মোরশিদা আত্মহত্যা করেছে। এই আত্মহত্যার জন্য মোরশিদার স্বামীর পরিবারই দায়ী বলে জানান তিনি। তিনি আরো বলেন, তার মেয়েকে শ্বশুর বাড়ির লোকজন নানারকম নির্যাতন করেছে। গত বৃহস্পতিবার স্থানীয় ইউপি সদস্যের সহায়তায় মোরশিদাকে শ্বশুর বাড়ি থেকে নিয়ে আসা হয়। নির্যতন সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যা করেছে বলেো জানান তিনি।

ঘটনার খবর পেয়ে লোহাগাড়া থানা পুলিশের এসআই মো: বেলাল ও এসআই অজয় দেব শীল সন্ধ্যায় ঘটনাস্থল গিয়ে লাশ উদ্ধার করে।

এসআই মো: বেলাল বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল গিয়ে লাশের সুরতহাল শেষে লাশ থানা হেফাজতে নিয়ে আসি। রোববার সকালে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •