সংবাদদাতা:
জমিসংক্রান্ত পূর্ব শত্রুতার জের ধরে চকরিয়া উপজেলার শাহারবিলে হামলার ঘটনা ঘটেছে। ১৯ আগষ্ট সন্ধ্যার দিকে পথ চলাচলের সমস্যা নিয়ে দুই পক্ষের কথা কাটাকাটি থেকেই মূলত ঘটনাটি ঘটেছে।

জানা যায়,কথা কাটাকাটির পর এক রকমে ঘটনা সমাধান হয়ে যায়। কিন্তু,পরক্ষণেই পাড়ার শফি,মনজুর,কালামিয়া,মোহাম্মদ হোসেন,মুবিন, মোজাফফর, জুনাইদ, বাবুল এবং আরও কয়েকজন মহিলা আব্বাস চৌকিদারের বাড়িতে প্রবেশ করে ঘরে থাকার সকলের উপর এবং বসত ভিটায় হামলা চালয়। এতে আব্বাস চৌকিদারের স্ত্রী, ছেলে চট্টগ্রাম কলেজের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী নুরুল হোসেন রাশেদ,ইয়াসির আরাফাতসহ ঘরে থাকা সকলেই গুরুতর আহত হন। আহতরা চকরিয়া সরকারি হাসপাতালে ভর্তি হলে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক এদের মধ্যে দুজনের অবস্থা আশঙ্কা জনক হওয়ায় কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তির নির্দেশ দেন।

আহতরা অভিযোগ নিয়ে থানায় গেলে এলাকার সুবিধাবাদী কিছু লোকের ইশারায় তাদের ফিরিয়ে দেয়া হয়। উপরন্তু হামলাকারীদের সাজানো, মিথ্যা ও ভিত্তিহীন অভিযোগ আমলে নিয়ে কোন প্রকার তদন্ত ছাড়াই চিকিৎসারত অবস্থায় চকরিয়া সরকারি হাসপাতালের জরুরি বিভাগ থেকে রাশেদ, তার মা,চাচীসহ তিন জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। অভিযোগ উঠেছে হামলাকারীদের সাজানো মামলায় ১২ বছরের শিক্ষার্থীকেও ফাঁসানো হয়েছে বলে অভিযোগ। হামলা, মামলার শিকার অসহায় পরিবার এ বিষয়ে যথোপযুক্ত তদন্ত পূর্বক অভিযুক্তদের উপর্যুক্ত শাস্তি ও ন্যায় বিচার আশা করেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •