সংবাদ বিজ্ঞপ্তিঃ

স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪ তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করেছে কক্সবাজার ইসলামী ব্যাংক রেসিডেন্সিয়াল মাদরাসা।
১৫ আগস্ট সূর্যোদয়ের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও অর্ধনমিতকরণের মাধ্যমে দিনের কর্মসূচির সূচনা হয়।
কালো ব্যাজ ধারণপূর্বক সকাল ১০ টায় শোক র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়।
সকাল সাড়ে ১০ টায় মাদরাসার সহসুপার মাওলানা বশির উদ্দিনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা ও দু’আ মাহফিলে প্রধান অতিথি ছিলেন ইসলামী ব্যাংক ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তা মোহাম্মদ ফারুক।
প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে ছাত্রদেরকে জাতির জনকের আদর্শে উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশ গড়ার কাজে সবাইকে আত্ননিয়োগ করার আহবান জানান।
সেই সাথে বঙ্গবন্ধুসহ তাঁর পরিবারের শহীদ সদস্যদের আত্নার মাগফিরাত কামনা করেন।
ইংরেজি শিক্ষক আনোয়ার হোসাইন মেহেদীর পরিচালনায় শুরুতে পবিত্র কুরআন তেলাওয়াত করেন ৭ম শ্রেণির ছাত্র মোঃ শাহাদাত উল্লাহ।
বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন আইবিএফ কক্সবাজার প্রকল্পের হিসাব কাম সমন্বয় কর্মকর্তা মোঃ মাহফুজুল করিম।
স্বাগত বক্তব্য রাখেন মাদরাসার এ্যাডজুট্যান্ট সাবেক সেনা কর্মকর্তা কাজী মোসলেহ উদ্দিন।
সভাপতির সমাপনী বক্তব্য রাখেন মাদরাসার সহ-সুপার মাওলানা বশির উদ্দিন।
তিনি তাঁর বক্তব্যে একটি হাদিসের উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, নবীজি (সা.) ইরশাদ করেন : “যে ব্যক্তি মানুষের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করতে জানে না, তার পক্ষে আল্লাহর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করাও সম্ভব না।” কাজেই যার মাধ্যমে একটি স্বাধীন ভূখন্ড অর্জিত হল তাঁর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানানো পুরা জাতির কর্তব্য ছিল। কিন্তু তা না করে উল্টো স্বপরিবারে এই মহান মানুষটিকে হত্যা করা তা পৃথিবীর কোন আইন যেমন সমর্থন করে না,তেমনি আল্লাহর আইনেও এমন বিচারবহির্ভূত হত্যাকান্ড মারাত্মকভাবে নিন্দনীয় অপরাধ। তাই আজকের শোক দিবসে বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ডের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি এবং তাঁর পরিবারের সকল শহীদ সদস্যসহ তাঁর অাত্নার মাগফিরাত কামনা করছি।
১৫ আগষ্ট ১৯৭৫ এ শাহাদত বরণকারী বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারবর্গের শহীদ সদস্যদের আত্নার মাগফিরাত কামনা করে দু’আ পরিচালনা করেন মাদরাসার সিনিয়র সহকারী মাওলানা জয়নাল আবেদীন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •