অনলাইন ডেস্ক :
প্লেন তখন আকাশে। এক নারী যাত্রী বাথরুম সেরে বের হওয়ার সময় দেখেন সেটির দরজার কাছে একটি সন্দেহজনক ডিভাইস ঝুলে আছে। হাতের রুমাল দিয়ে সেটি ধরে নিয়ে যান ফ্লাইট এটেন্ডেন্টের কাছে।

যুক্তরাষ্ট্রের স্যান দিয়াগো থেকে হিউস্টন যাচ্ছিল ইউনাইটেড এয়ারলাইন্সের বিমানটি। গন্তব্যে পৌঁছার পর ফ্লাইট এটেন্ডেন্ট ডিভাইসটি বিমানবন্দরের নিরাপত্তাকর্মীদের কাছে হস্তান্তর করেন।

তারা দ্রুতই চিহ্নিত করতে সক্ষম হন এটি একটি ভিডিও রেকর্ডিং ডিভাইস। এরপর এফবিআইয়ের কাছে সেটি হস্তান্তর করা হলে বিমান যাত্রীদের একজনকে তারা চিহ্নিত করে।

চুন পিং লি নামের ওই মালয়েশিয়ান নাগরিক ক্যামেরাটি ওখানে রেখে আসেন। এফবিআই সদস্যরা পরীক্ষা করে দেখতে পান ওই ক্যামেরায় এমির‍্যাটস এয়ারলাইন্সের একটি বাথরুমে ধারণ করা কিছু ফুটেজও রয়েছে। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অপরাধ প্রমাণিত হলে এক বছরের সাজা ও জরিমানার মুখোমুখি হবেন তিনি।

– যমুনা

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •