এ কে এম ইকবাল ফারুক,চকরিয়া :

মাছের প্রজনন মৌসূমে সমুদ্রে মৎস্য আহরণ থেকে বিরত থাকা কক্সবাজারের চকরিয়া পৌর এলাকার ৭৬৭জন জেলে পরিবারের মাঝে দ্বিতীয় দফায় বিশেষ ভিজিএফ এর চাল বিতরণ করা হয়েছে। এতে প্রত্যেক জেলে পরিবারকে ৪৬.৬৬ কেজি করে চাল বিতরণ করা হয়। বুধবার (৭ আগষ্ট) সকালে পৌর পরিষদ ভবন প্রাঙ্গনে জেলে পরিবার সমুহের মাঝে দ্বিতীয় দফায় আনুষ্ঠানিকভাবে এ বিশেষ ভিজিএফ’র চাল তুলে দেন চকরিয়া পৌরসভার মেয়র আলমগীর চৌধূরী।

এ সময় পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র (১) মো. বশিরুল আইয়ুব, ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও পৌর প্যানেল মেয়র (৩) ফোরকানুল ইসলাম তিতু, পৌর সচিব মাসউদ মোরশেদ, চাল বিতরণ কার্যক্রমের ট্যাক অফিসার ও সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম, পৌরসভার প্রধান সহকারী মোস্তাক আহামদ, পৌর কাউন্সিলরগন ও পৌরসভার অন্যান্য কর্মকর্তাগন উপস্থিত ছিলেন।

চকরিয়া পৌরসভার মেয়র আলমগীর চৌধূরী বলেন, মাছের প্রজনন মৌসূম হিসেবে গত ২০ মে থেকে ২৩ জুলাই পর্যন্ত ৬৫ দিন বঙ্গোপসাগরে জেলেদের মাছ ধরা সরকারীভাবে নিসিদ্ধ ছিল। ওই সময়কালীন জেলেদের খাদ্য সহায়তা হিসেবে সরকারীভাবে চাল সরবরাহের উদ্যোগ নেয়া হয়। তারই ধারাবাহিকতায় দেশের অন্যান্য স্থানের মতো চকরিয়া পৌর পৌরসভার ৭৬৭জন জেলে পরিবারকে দ্বিতীয় দফায় ৪৬.৬৬ কেজি করে বিশেষ ভিজিএফ’র চাল বিতরণ করা হয়। পৌর মেয়র আরও বলেন, গত জুন মাসের শুরুতেও (ঈদুল ফিতরের পূর্বে) এসব জেলেদের মধ্যে ৪০কেজি করে বিশেষ ভিজিএফ এর চাল বিতরণ করা হয়েছিল।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •