মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে অনুষ্ঠিতব্য ঈদের প্রধান জামাতে ইমামতি ও খুতবা প্রদান করবেন কক্সবাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ভারপ্রাপ্ত খতিব মুফতি মাওলানা সোলাইমান কাসেমী। কক্সবাজার কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানের ঈদের জামায়াতের বিগত প্রায় ৩ দশকের খতিব আল্লামা মাহমুদুল হক পবিত্র হজ্ব পালন করতে সৌদি আরব থাকায় গত রোববার ৪ জুলাই ঈদুল আযাহা উপলক্ষে কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। আগামী ১২ আগষ্ট, ১০ জিলহজ্ব, সোমবার সকাল ৮ টায় কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে জেলার ঈদুল আজহার প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এ তথ্য কক্সবাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সহকারী ইমাম হাফেজ মাওলানা হেলাল উদ্দিন সিবিএন-কে নিশ্চিত করেছেন। মুফতি মাওলানা সোলাইমান কাসেমী কক্সবাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে ১৯৯১ সালে প্রধান ইমাম হিসাবে যোগদান করে অধ্যাবদি এই দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি ঈদগাহ ময়দান জামে মসজিদের নিয়মিত খতিব। কক্সবাজার শহরের সবচেয়ে বড় কওমি মাদ্রাসা পাহাড়তলী রহমানিয়া মাদ্রাসার পরিচালকের দায়িত্ব পালন করছেন সফলভাবে। মুফতি মাওলানা সোলাইমান কাসেমী বাংলাদেশ তাহফিজুল কোরআন সংস্থার প্রধান বিচারক ও কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির একজন নির্বাহী সদস্য। মুফতি মাওলানা সোলাইমান কাসেমী দক্ষিণ চট্টগ্রামের বৃহত্তর দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পটিয়া আল জামেয়া ইসলামিয়া কাসেমুল উলুম থেকে পবিত্র কোরআন হেফজ ও জামাতে পন্ঞ্জুম পর্যন্ত সম্পন্ন করেন। পরে দক্ষিণ এশিয়ার বিখ্যাত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ভারতের জামেয়া দারুল উলুম দেওবন্দ থেকে প্রথম শ্রেণীতে (মমতাজ) কৃতিত্বের সাথে দাওরায়ে হাদিস ডিগ্রী অর্জন করেন। অত্যন্ত মেধাবী ও প্রতিভা সম্পন্ন মুফতি মাওলানা সোলাইমান কাসেমী একজন গুনী, বিশিষ্ট আলেমেদ্বীন হিসাবে সবার কাছে সুপরিচিত। ঈদুল আজহা উদযাপন উপলক্ষে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের শহীদ এটিএম জাফর আলম সিএসপি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাঃ শাজাহান আলি কে আহবায়ক করে ১২ সদস্য বিশিষ্ট ঈদুল আজহা ব্যবস্থাপনা কমিটি গঠন করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •