সংবাদদাতা:
কক্সবাজার জজ কোর্টে মামলার হাজিরা দিতে গিয়ে ১ মাস ধরে নিখোঁজ রয়েছে টেকনাফের জাহাঙ্গীর আলম নামে (৪৫)এক ব্যক্তি।
তিনি টেকনাফ পৌরসভা ৭নং ওয়ার্ডের চৌধুরী পাড়া এলাকার মৃত মোহাম্মদ ইলিয়ার ছেলে। দুই ছেলে, ৫ মেয়ে সন্তানের জাহাঙ্গীরের পরিবারে চলছে আহাজারি। তার স্বজনেরা উদ্বেগ উৎকণ্ঠায় রয়েছে।
গত ৪ জুলাই কক্সবাজার জজ কোর্টে জি.আর ৩৫০/১৭ইং মামলায় হাজিরা দিতে গিয়েছিল জাহাঙ্গীর আলম।
নিখোঁজ জাহাঙ্গীরের স্ত্রী হোসনে আরা বেগম জানিয়েছে, গত ৪ জুলাই তার স্বামী জাহাঙ্গীর আলম টেকনাফ থেকে একটি ভাড়ায় চালিত সিএনজিযোগে কক্সবাজার আদালতে মামলার হাজিরা দিতে গিয়েছিল। ওই দিন বিকালে ব্যক্তিগত ফোন থেকে তাকে কলও করে।
স্ত্রী জানান, স্বামী ফোনে তাকে কিছু বলতে চাইলেও নেটওয়ার্কের সমস্যার কারণে কি বলেতে চেয়েছিলেন তা সঠিক বুঝতে পারেনি। কিছুক্ষণের মধ্যেই জাহাঙ্গীরের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। আর কথা বলতে পারেনি।
এরপর অনেকবার ফোন করলেও জাহাঙ্গীরের মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।
হোসনে আরা বেগম আরো জানান, আত্মীয় স্বজন ও সম্ভাব্য বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুজি করার পরও জাহাঙ্গীর আলমের কোন সন্ধান মেলেনি। এ বিষয়ে টেকনাফ থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করতে গেলে দেরী হওয়ার কারণ জানিয়ে পুলিশ ডায়েরী নিতে অপারগতা প্রকাশ করেছে বলে জানান হোসনে আরা।
অবুঝ সন্তান সন্তুতির দিকে চেয়ে হলেও জাহাঙ্গীর আলমের সন্ধানে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনের কাছে আকুল আবেদন জানিয়েছে নিখোঁজ জাহাঙ্গীর আলমের স্ত্রী হোসনে আরা বেগম।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •