নিজস্ব প্রতিবেদক:

খুরুশকুল ডেনলপাড়া এলাকায় ৯৯৯ কলের অভিযোগে সদর মডেল থানার হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল নুরুল বশরের কন্যা ১৫ বছরের স্বপ্না বেগম। বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে কক্সবাজার সদর থানার ওসি ফরিদ উদ্দিন খন্দকারের নেতৃত্বে বিয়ে বাড়ি থেকে বর ও কনেকে উদ্ধার করে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (এসিল্যান্ড) শাহরিয়ার মুক্তার বর-কনে পক্ষের অভিভাবকরা তাদের ছেলে-মেয়েদের বাল্যবিয়ে দেবে না মর্মে মুচলেকা প্রদান করেন।

কক্সবাজার সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বেলাল উদ্দিন জানান, বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে খুরুশকুল ডেনলপাড়া এলাকায় স্বপ্না বেগম (১৫) সাথে চট্রগ্রাম বোয়ালখালী থানার মধ্যম কদুরখিল গ্রামের দৌলতবাড়ি আবদুল জাব্বারের ছেলে আবদুল ছলিম (৩৫)। সচেতন মহলের পক্ষ থেকে বাল্য বিবাহ বন্ধে ৯৯৯ কল করে অভিযোগ জানান। খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক রাত ৯টার দিকে কনের বাড়ি থেকে বর-কনে সহ অভিভাবকদের থানায় এনে একই দিনে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করলে উভয় পক্ষের ছেলে-মেয়েদের বাল্যবিয়ে দেবে না মর্মে মুচলেকা প্রদান করে ছেড়ে দেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •