cbn  

ছবি প্রতিকী

মু: হেলাল উদ্দিন

১৯৯৪ সালের জানুয়ারি মাস। সবে মাত্র ৭ম শ্রেণীর কার্যক্রম শুরু হয়েছে। আমাদের প্রিয় বন্ধু মতি আমাদের এক বছরের জুনিয়র সুমির সাথে তার তিন মাসের সুদীর্ঘ সময়ের প্রেমের সম্পর্কের ইতি টেনে সুমিকে নিয়ে অজানার উদ্যেশ্যে পাড়ি জমাল।

সুমির বাবার মতির বিরুদ্ধে অপহরণের মামলা করলেন। মামলা হামলার ভয়ে মতি তার ভালবাসা সুমিকে নিয়ে আত্মগোপনে চলে গেল। দীর্ঘ সময়ও তাদের কোন খোঁজ পাওয়া যায়নি। কারো সাথে কোন প্রকার যোগাযোগ করেনি তারা। দু’জনের ভালবাসা এখন পর্যন্ত স্বর্র্গীয় সুখের পর্যায়ে আছে।

আমি ফেসবুক ব্যবহার করি ২০১০ সাল থেকে। এখানেই তার সাথে কথা হয় ২০১১ সাল থেকে। কোথায় আছে বলে না। হাই হ্যালো পর্যন্তই তাদের আলাপ। খুব ভয় পায় আইন আদালতকে। অনেক চেষ্টা করেছি অবস্থান জানার জন্য।

আমি পুলিশের চাকরি করি বলেই সে আমাকেও বিশ্বাস করে না। তার ভয় তাদের আমি ধরিয়ে দেব। আমাকে খুব পছন্দ করে। আমার অনেক বড় শুভার্র্থী সে। বিভিন্ন জনের কাছে সব সময় আমার খবর নেয়। তাদের অবস্থান না জানালেও বিভিন্ন সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যমতে আমার বন্ধুটি তার প্রেয়সীকে নিয়ে ভিনদেশে থাকে মর্মে আমার কাছে প্রতীয়মান হয়।

কয়েক বছর আগে প্রশিক্ষণজনিত কারণে একবার আমি ৭ দিনের জন্য সিঙ্গাপুর যাই। আমার সিঙ্গাপুর যাওয়ার খবর পেয়ে আমার আরেক বন্ধু তার ফেসবুক ওয়ালে লিখে দিল,‘আমাদের প্রিয় বন্ধু……. ৭ দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে সিঙ্গাপুর গেল,তার জন্য শুভ কামনা রইল’।

বন্ধুর এ স্ট্যাটাসটি প্রেয়সীকে নিয়ে প্রবাসী হওয়া বন্ধু মতি দেখে আরো কয়েক বছর পর। হঠাৎ গভীর রাতে ফোন বেজে উঠল। ফোন ধরলাম।

=দোস্ত আমি মতি।

=বল,এত রাতে দুনিয়া থেকে না দুনিয়ার বাইরে থেকে?

=সরি দোস্ত,ফেসবুকে দেখলাম তুমি ৭ দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে সিঙ্গাপুর গেছ। এত হাসি পাচ্ছে তাই ফোন না দিয়ে পারলাম না।

=কেন? হাসির কি হল? বেশি হাসি পেলে বউরে জড়াই ধরি ঘুমাও। হাসি কমে যাবে।

=না দোস্ত এ হাসি কমবে না।

= তুমি কোন দেশে এটা বল আগে,নয়তো ফোন কেটে দিব।

=তোর রাষ্ট্রীয় সফর কি শেষ?

=এটা আরো ছয় বছর আগের স্ট্যাটাস। শালা পড়া লেখা না করে বউ নিয়ে পালালে ছয় বছর আগের লেখা দেখে এভাবেই বোকা হতে হয়।

আমার বন্ধু মতি অট্টহাসি দিল। তার হাসি থামেই না।

অনেক সময় পরে বলল,

=দোস্ত তুমি কি রাষ্ট্রীয় সফরে গেছ?

আমার বুঝতে বাকি রইল না পড়া লেখা না করে প্রেয়সীকে নিয়ে পালিয়ে যাওয়া বন্ধু মতি প্রশ্ন করে কোনটা জানাতে চাইল। তার কাছে কি জবাব দিব? আমিতো কোন রাষ্ট্রীয় সফরে যাইনি। গেছিলাম সরকারি সফরে। আবার রাষ্ট্রীয় সফরের স্ট্যাটাসটিও আমি দিইনি, দিয়েছিল আমার আরেক বন্ধু। বললাম,

=তুমি দেশে চলে আস,কোন ঝামেলা হবে না।

সে বলল,

=তোমরা রাষ্ট্রীয় আর সরকারি সফরই বুঝ না। আমাদের প্রেম কিভাবে বুঝবে? যাব না তোমাদের দেশে। এখানেই ভাল আছি। কেউ মিথ্যা কথা বলে না, কেউ মিথ্যা বললে জানা লোক তা সংশোধন করে দেয়।

আমি কিছু না বলে মোবাইলটা বালিশের পাশে রেখে দিয়ে ঘুমিয়ে পড়লাম। কাল সকালে মতি ফোন দিয়ে আরেকটা প্রশ্ন করলে কি জবাব দিব এ চিন্তায় আমার ঘুম আসতেছেনা।


লেখক :  মুহাম্মদ হেলাল উদ্দিন ,চাকরিজীবি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •