cbn  

বিদেশ ডেস্ক: গত রবিবার রাতে উত্তরপ্রদেশের চাণ্ডৌলিতে জয়শ্রীরাম বলতে রাজি না হওয়ায় এক মুসলিম কিশোর কে বেধড়ক পিটিয়ে তাকে জীবন্ত আগুনে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করে কয়েকজন দুস্কৃতী। ওই কিশোর অভিযোগ করেছিলেন, ব্যক্তিগত কাজে দুধারি ব্রিজের উপর দিয়ে যাচ্ছিল তিনি। এর পর আচমকাই চারজন তাকে ঘিরে ধরে৷ প্রায় জোর করে টেনেহিঁচড়ে একটি জায়গায় নিয়ে যাওয়া হয় তাকে৷ দু’জন মিলে তার হাত-পা বেঁধে ফেলে৷ ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি দেওয়ার জন্য জোর করা হয় ওই মুসলমান কিশোরকে৷ তবে সে বলতে রাজি হয়নি৷ এই নিয়ে অপহরণকারীদের সঙ্গে ওই কিশোরের কথা কাটাকাটি হয়৷

এরপর হঠাৎ অপহরণকারীদের দলে থাকা এক যুবক কিশোরের গায়ে কেরোসিন তেল ঢেলে দেয়৷ কিছু বুঝে ওঠার আগেই কিশোরের গায়ে জ্বলন্ত দেশলাই কাঠি ছুঁড়ে দেয় সে৷ জীবন্ত জ্বলন্ত অবস্থায় ছটফট করতে শুরু করে কিশোর৷ পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে ঘটনাস্থল ছেড়ে চম্পট দেয় চারজন৷

এমন পরিস্থিতিতে তাকে বাঁচাতে কেউই এগিয়ে আসেনি৷ বাধ্য হয়ে অতি কষ্টে বাড়ি পৌঁছয় সে৷ তড়িঘড়ি পরিজনেরা কিশোরকে উদ্ধার করে কাশীর কবির চৌরা হাসপাতালে ভরতি করেন৷ চিকিৎসকরা জানান, তার শরীরের প্রায় ৪৫ শতাংশ পুড়ে গিয়েছে৷ অবস্থা অত্যন্ত সংকটজনক৷ আদৌ তাকে বাঁচানো সম্ভব হবে কি না, তা নিয়ে যথেষ্ট সংশয়ে ছিলেন চিকিৎসকরা৷ এবার সেই সংশয়ই সত্যি। হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করতে করতে অবশেষে পরাজিত হলেন। বারাণসীর কবীর চারু হাসপাতালে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় মারা গেলেন সেই কিশোর।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •