cbn  

মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার পৌরসভা বিএনপি’র সভাপতি, জেলা বিএনপির সহ সভাপতি, কক্সবাজার-টেকনাফ বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক, শহরের বানু প্লাজার সত্বাধিকারী, বদরমোকাম জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব রফিকুল হুদা চৌধুরীর সহধর্মিণী দিল আফরোজা চৌধুরী তনু’কে শহরের থানা রোডস্থ নিজ বাড়ির আঙ্গিনা বদরমোকাম জামে মসজিদ সংলগ্ন দক্ষিণ পার্শ্বের কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত করা হয়েছে। আসলে কাকতালীয় ঘটনা হলো-রফিকুল হুদা চৌধুরী ও দিল আফরোজা চৌধুরী তনু’র বাসভবনের সামনেই বদরমোকাম এই কবরস্থান। এর আগে মঙ্গলবার ৩০ জুলাই জহুরের নামাজের পর বদরমোকাম জামে মসজিদ মাঠে দিল আফরোজা তনু’র দ্বিতীয় নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় প্রিপ্যারেরটরী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক মাওলানা শফিক আহমদ আকবর ইমামতি করেন। জানাজার আগে বদরমোকাম জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক আবদুল হান্নান মুসল্লীদের উদ্যোগে বক্তৃতা করেন। জানাজায় প্রচুর মুসল্লীর সমাগম ঘটে। দিল আফরোজা তনু’র প্রথম নামাজে জানাজা সোমবার ২৯ জুলাই এশারের নামাজের পর চট্টগ্রাম শহরের বায়েজিদ বোস্তামী থানার ফরেষ্ট এরিয়ায় হিলভিউ আবাসিক এলাকায় হিলভিউ জামে মসজিদ মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। এ জানাজার নামাজে ইমামতি করেন হিলভিউ জামে মসজিদের খতিব।
বিষয়টি আলহাজ্ব রফিকুল হুদা চৌধুরী’র একান্ত সহকারী মোহাম্মদ মুরাদ সিবিএন-কে নিশ্চিত করেছেন।
চট্টগ্রাম শহরের ম্যাক্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার ২৯ জুলাই বেলা ১ টার দিকে দিল আফরোজা চৌধুরী তনু (৫৫) ইন্তেকাল করেন (ইন্নলিল্লাহি–রাজেউন)। মরহুমা দিল আফরোজা চৌধুরী তনু আবদুল্লাহ আল মুকিত ও ইন্জিনিয়ার রাফায়েত তাসকিন নামক এক পুত্র ও এক কন্যা সন্তানের গর্বিত জননী। মরহুমা দিল আফরোজা চৌধুরী তনু বৃহত্তর চকরিয়া উপজেলার বর্তমান পেকুয়া উপজেলার অবিভক্ত মগনামা ইউনিয়েনের সাবেক চেয়ারম্যান, ঐতিহ্যবাহী বুনিয়াদী পরিবারের কৃতি সন্তান মৃত মোজাহেরুল হক চৌধুরী প্রকাশ মোজাহের মিয়া ও মৃত খোরশেদ আরা বেগমের কন্যা। ১৯৮২ সালে মরহুম আবদুল ওয়াদুদ ও মরহুমা শহর বানু’র পুত্র বদরমোকাম নিবাসী বিশিষ্ট ব্যবসায়ী রফিকুল হুদা চৌধুরীর সাথে দিল আফরোজা তনু বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। কক্সবাজার শহরের থানা রোডস্থ বদরমোকাম নিবাসী মরহুমা দিল আফরোজা চৌধুরী তনু দীর্ঘ তিন বছর ধরে কিডনি রোগে ভোগছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •