cbn  

বার্তা পরিবেশক :

মনজুুরুল ইসলাম একজন আইনজীবী। কিন্তু তিনি বর্তমানে একজন অগ্রগামী কবি। তিনি অগ্রসর পাঠকের কবি। সব্যসাচীর মতো তিনি দুই হাতেই লিখে যাচ্ছেন। তাঁর লেখালেখি বর্তমানে তাঁর আইন পেশাকে চাপা দিয়েছে। তাঁর লেখালেখি তাঁর আইন পেশাকে অতিক্রম করে গেছে। ফলে আইনজীবী হিসেবে তাঁর পরিচিতি ক্রমেই গৌণ হয়ে আসছে। তিনি লিখে যাচ্ছেন সমাজের জন্য, লিখেন পরিবারের জন্য, রাষ্ট্রের বিনির্মাণে। তাঁর প্রতিটি কবিতার পরতে পরতে আছে গ্রামের চিত্র, রাষ্ট্রের দৃশ্যপট। কবি মনজুরুল ইসলাম সনেট লিখে হাত পাকিয়েছে ইতোমধ্যেই। সনেট লেখক হিসেবে কক্সবাজারে কবি মুহম্মদ নূরুল হুদার পরেই কবি মনজুরুরের নাম বলতে হয়। তিনি লিখছেন মাত্রাবৃত্ত, অক্ষরবৃত্ত, গদ্য ছন্দে, মুক্ত ছন্দে কবিতা লিখে যাচ্ছেন।

কক্সবাজার সাহিত্য একাডেমীর ৪৫২ তম পাক্ষিক সাহিত্য সভায় বক্তাগণ এসব কথা বলেন।

২৬ জুলাই ২০১৯ একাডেমীর ৪৫২ তম পাক্ষিক সাহিত্য সভায় একাডেমীর সহ-সাধারণ সম্পাদক কবি মনজুরুল ইসলামের বাছাই করা একগুচ্ছ কবিতা নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

একামেডীর সভাপতি মুহম্মদ নূরুল ইসলাম সাহিত্য সভায় সভাপতিত্ব করেন।

একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক কবি রুহুল কাদের বাবুলের পরিচালনায় কবি মনজুরুল ইসলামের গুচ্ছ কবিতার মুখ্য আলোচক ছিলেন একাডেমীর স্থায়ী পরিষদের চেয়ারম্যান কবি সুলতান আহমেদ। এছাড়াও আলোচনা করেন মূল্যায়ন সম্পাদক কবি অমিত চৌধুরী, স্থায়ী পরিষদের সদস্য গবেষক নূরুল আজিজ চৌধুরী, একাডেমীর অর্থ সম্পাদক কবি মোহাম্মদ আমিরুদ্দীন, নির্বাহী পরিষদ সদস্য ছড়াকার নূরুল আলম হেলালী, একাডেমীর অফিস সম্পাদক আজাদ মনসুর, নির্বাহী সদস্য আবৃত্তিকার কল্লোল দে চৌধুরী ও কবি-মাওলানা আল মাহমুদ প্রমুখ।

বক্তাগণ আরো বলেন, কবি মনজুরুল ইসলাম সামনে আরো এগিয়ে যাবেন এটাই আমাদের প্রত্যাশা।

কক্সবাজার সাহিত্য একাডেমীর ৪৫৩ তম সাহিত্য আগামী ২৬ জুলাই

কক্সবাজার সাহিত্য একাডেমীর ৪৫৩তম পাক্ষিক সাহিত্য সভা আগামী ২ আগস্ট ২০১৯ শুক্রবার বিকাল ৪টায় কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সভা কক্ষে অনুষ্ঠিত হবে। উক্ত সাহিত্য সভায় বিশ^ সাহিত্য কেন্দ্রের প্রাণপুরুষ প্রফেসর আবদুল্লাহ আবু সাইদের জীবন কথা নিয়ে আলোচনা করা হবে।

অনুষ্ঠানে একাডেমীর সংশ্লিষ্ট সকলসহ জেলার কবি-সাহিত্যিক, সাহিত্যামোদিদের যথাসময়ে উপস্থিত থাকার জন্য একাডেমীর সভাপতি মুহম্মদ নূরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক কবি রুহুল কাদের বাবুল আহবান জানিয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •