cbn  

শাহেদ মিজান, সিবিএন:

বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে ভারতে পালানোর সময় আটক হয়েছেন টেকনাফের শীর্ষ ইয়াবা ব্যবসায়ী ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আহমদের পুত্র ইউপি চেয়ারম্যান  শাহজাহান মিয়া। বৃহস্পতিবার বিকেলে বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ তাকে আটক করেন। আটক শাহাজাহান মিয়া তিনি স্বরাষ্ট মন্ত্রণালয়ের ৯ নম্বর তালিকা ভুক্ত ইয়াবা কারবারি। কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইকবাল হোসাইন খবরটি নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশের দেয়া তথ্য মতে, শাহজাহান মিয়ার পাসপোর্ট ব্লক থাকায় তাকে ভারত যাওয়ার সময় আটক করা হয়। ইয়াবা ব্যবসায়ী শাহাজাহান মিয়া দীর্ঘদিন ধরে আত্মগোপনে রয়েছেন। তিনি আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীর নজর এড়াতে এই কৌশল অবলম্বন করেন। গ্রেফতার এড়াতে তার বিদেশ পালানো নিয়ে সতর্কতা ছিলো। সে কারণে তার বিদেশ গমণের উপর নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়। বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে ভারত পালাতে গিয়ে তিনি ইমিগ্রেশন পুলিশের হাতে আটক হয়েছেন। বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ বিষয়টি কক্সবাজার জেলা পুলিশকে অবগত করেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, টেকনাফ সদর ইউপি চেয়ারম্যান এবং শ্রমিক লীগ সভাপতি এই কারবারি এর আগে দুবাই পাড়ি দিতেও চেষ্টা করেন। কারবারী শাহজাহান সাবেক এমপি বদির বাম হাত এবং তার বাবা সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আহমদ ডান হাত হিসেবে পরিচিত। কারবারি শাহজাহানের বিরুদ্ধে অস্ত্র এবং ইয়াবার ৫ টি মামলা রয়েছে।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বেনাপোল পোর্ট থানায় কঠোর নিরপত্তার মধ্যে শাহজাহান মিয়াকে রাখা হয়েছে। থানার প্রধান গেট তালা দিয়ে সেন্টি দিয়ে নিরাপত্তার দায়িত্ব কঠোরভাবে পালন করা হচ্ছে। সাংবাদিকসহ কাউকে প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না।

ছবি : মোঃ রাসেল ইসলাম , বেনাপোল প্রতিনিধি

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •