cbn  

আলমগীর মানিক,রাঙামাটি:
রাঙামাটি পার্বত্য জেলা জুড়ে চলছে আতংক গুজব। এসব আতংক গুজবে কান না দিতে এবং ছেলে ধরা,গলাকাটা ও রক্ত নিয়ে যাবে এ থেকে জনগণকে সচেতন করতে মাঠে নেমেছেন জেলা প্রশাসন ও পুলিশ সুপার। গতকাল বুধবার সকালে শহরের রানী দয়াময়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষিকা, অভিভাবক ও ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে গুজব বিরোধী প্রচার অভিযান চালায় রাঙামাটি পার্বত্য জেলার সুযোগ্য পুলিশ সুপার মো.আলমগীর কবীর পিপিএম-সেবা।

পুলিশ সুপার ছাত্র-ছাত্রী ও তাদের অভিভাবকদের উদ্দেশ্য করে বলেন,পদ্না সেতুর জন্যমানুষের মাথা ও রক্ত লাগবে সৃষ্ট গুজবে কান না দিতে আহবান জানান। তিনি বলেন,পদ্না সেতুর জন্য মানুষের মাথা ও রক্ত লাগবে এটা সম্পূর্ণ একটি গুজব।পদ্না সেতুর জন্য মেধা শ্রম শক্তি। পদ্না সেতু উন্নত যন্ত্রপাতি প্রযুক্তি ও দেশী বিদেশী অভিঞ্জতা সম্পূর্ণ ব্যক্তিদের সমন্বয়ে বাস্তবায়িত হচ্ছে। একটি কুচক্রি মহল দেশের শান্তি ও অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করার জন্য রুপকথার গল্পের মত গুজব ছড়াচ্ছে। গুজবে বিভ্রান্ত হয়ে নিজের মনে ভীতি সঞ্চারনা করার জন্য পুলিশ সুপার সবার প্রতি আহবান জানান।

পুলিশ সুপার অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে বলেন,ছেলে ধরা সন্দেহে এ পর্যন্ত যে সমস্ত গণপিটুনির মত ঘটনা ঘটেছে তাহার একটির ও সত্যতা পাওয়া যায়নি। সন্দেহ থেকে অতিউৎসাহিত হয়ে যারা গণপিটুনি দিয়ে মানুষকে মেরেছে তাদের সবাইকে আইনের আওতায় আনা হচ্ছে। ছেলে ধরা এটা নিছক গুজব। অযাথা কেউ এই গুজবে বিভ্রান্ত হবেন না এবং গুজবে কান দেবেন না। তিনি আরো বলেন,এগুজব শুনার সাথে সাথে মাঠে একাধিক গোয়েন্দা টীম সাদা পোশাকে কাজ করছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন,রানী দয়াময়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রণতোষ মল্লিক, বিদ্যালয়ের সকল শ্রেণির শিক্ষকমন্ডলী,অভিভাবক,শিক্ষার্থীরাসহ প্রশাসনের বিভিন্ন লোকজন। এদিকে জেলা প্রশাসকের নির্দেশ ক্রমে এ গুজব বিরোধী অভিযানে জেলা প্রশাসনের একটি টীম শহরের বেশ কিছু বিদ্যালয়ে সভা সমাবেশ করেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •