মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্পে স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে সরকার মানবিক কারণে সচেতন রয়েছে। এজন্য সীমিত সম্পদ দিয়ে মায়ানমার থেকে আাসা বলপূর্বক বাস্তুচ্যূত রোহিঙ্গাদের সর্বোচ্চ মানসম্মত সেবা দিতে হবে। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রী জাহিদ মালেক সোমবার ২২ জুলাই বিকেলে উখিয়ার কুতুপালং মধুরছড়া শরনার্থী ক্যাম্প পরিদর্শনকালে ক্যাম্পে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা নিয়ে কর্মরত সরকারি-বেসরকারি চিকিৎসক, কর্মকর্তা-কর্মচারী, স্বাস্থ্যকর্মীদের উদ্দেশ্যে একথা বলেন। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রী জাহিদ মালেক ক্যাম্পে কতজন শরণার্থীর অনুকূলে কতজন ডাক্তার, নার্স, মিডওয়াইফ, চিকিৎসা সহকারী পদে কর্মরত আছেন, সেবা প্রদানে কোন প্রকার ঘাটতি আছে কিনা ইত্যাদি বিষয়ে খোঁজ খবর নেন।
স্বাস্থ্য মন্ত্রী গর্ভবতী মহিলাদের সেবা প্রদানের ধরণ, পর্যাপ্ত ঔষধ সরবরাহ আছে কিনা, রাত্রিকালীন সেবা প্রদানে কোন প্রকার ঘাটতি অাছে কিনা এসব বিষয়ে অবহিত হন এবং বিভিন্ন ব্যাপারে দিক নির্দেশনা দেন। পরে তিনি এমএসএফ কর্তৃক পরিচালিত নিয়মিত স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। পরিদর্শন শেষে সন্ধ্যায় তিনি কক্সবাজার ফিরে আসেন। পরিদর্শনকালে মন্ত্রীর সাথে অন্যান্যের মধ্যে-ডাঃ হাসান শাহরিয়ার কবির, পরিচালক(স্বাস্থ্য) চট্রগ্রাম বিভাগ, চট্রগ্রাম, ডাঃ মোহাম্মদ আবদুল মতিন, সিভিল সার্জন, কক্সবাজার, ডাঃ মোঃ মহিউদ্দিন, তত্ত্বাবধায়ক, জেলা সদর হাসপাতাল, ক্যাম্প ইনচার্জ, ডাঃ পিন্টু কান্তি ভট্রাচার্য, উপ-পরিচালক, পরিবার পরিকল্পনা, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিকারুজ্জামান চৌধুরী রবিন, ম্যাজিস্ট্রেট খোরশেদ আলম, উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল মনছুর, ডাঃ মোঃ আবদুল মন্নান, উখিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা, জসিম উদ্দিন, ডাঃ নোবেল বড়ুয়া, আবাসিক মেডিকেল অফিসার, জেলা সদর হাসপাতাল, মোরশেদুল আলম, সহকারী প্রকৌশলী, এইচইডি, সিরাজুল ইসলাম, জেলা স্বাস্থ্য তত্ত্বাবধায়ক, কক্সবাজার সিভিল সার্জন অফিস, মোঃ রফিকুল ইসলাম, প্রধান সহকারী, সিভিল সার্জন অফিস প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •