লোহাগাড়া প্রধিনিধি:
চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার চুনতি ডেপুটি পাড়া এলাকায় রোববার দিনগত রাত দেড় টায় গরু চোর সন্দেহে আব্দুর রহিম (৩৫) নামের এক যুবক গণপিটুনি দিয়েছে স্থানীয়রা। সে কক্সবাজারের রামু বড় ডেপা এলাকার মো: হাসানের ছেলে। বিষয়টি স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান জয়নুল আবেদিন নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, রোববার দিনগত রাতে উপজেলার চুনতি ডেপুটি পাড়া এলাকায় রাত দেড়টার সময় গরু চোর সন্দেহে আব্দুর রহিমকে গণপিটুনি দেন স্থানীয়রা। খবর পেয়ে লোহাগাড়া চুনতি পুলিশ ফাঁড়ির এসআই পীযুষ চন্দ্র সিংহ সঙীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে রহিমকে জনতার হাত থেকে আহতবন্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান।

গণপিটুনিতে আহত আব্দুর বলেন, সে ওই এলাকায় তার বন্ধুর সাথে বেড়াতে এসেছিল। ওই সময় তার বন্ধুও ছিল। তিনি আরো বলেন, স্থানীয়রা তাদের কোন কথা না শুনে মারতে থাকে। পুলিশ যথা সময়ে না আসলে মেরে ফেলত।

লোহাগাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও প: প: কর্মকর্তা ডা: মুহাম্মদ হানিফ বলেন, রোববার রাতে গণপিটুনিতে আহত এক যুবককে আহতবন্থায় ভর্তি পুলিশের জিম্মায় ভর্তি করানো হয়। চিকিৎসার অবনতি হলে সোমবার সকালে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

চুনতি পুলিশ ফাঁড়ির এনআই পীযুষ চন্দ্র সিংহ বলেন, গরু চোর সন্দেহে যুবকরেক গণপিটুনিতে আহত হওয়ার সংবাদ পেয়ে সঙীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে আব্দুর রহিম নামের এক যুবককে উদ্ধার কওে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় কেই কোন প্রকার অভিযোগ করেনি বলেও জানান তিনি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •