খুটাখালী থেকে অপহৃত জসিম ফিরেছে, আনসার কমান্ডার গিয়াসের খোঁজ নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক
অপহরণের এক সপ্তাহ পর উদ্বেগ ও আতংকের ডেরা থেকে অপহৃত যুবক জসিম উদ্দিনের মুক্তি মিললেও এখনো হদিস নেই অপহৃত আনসার কমান্ডার গিয়াস উদ্দিনের (২৮)। গত ১৫ জুলাই দুপুর ১টায় চকরিয়া উপজেলার খুটাখালী ইউনিয়নের প্রধান সড়কস্থ মেধা কচ্ছাপিয়া যাত্রী ছাউনীর উত্তর পাশ থেকে মোটর সাইকেল আরোহী দু’যুবক গিয়াস ও জসিমকে তুলে নিয়ে যায় সাদা পোশাকের একদল লোক। এদিকে ছাড়া পাওয়া যুবক জসিম চকরিয়া থানা পুলিশ ও স্বজনদের জানান- আমরা দু’জনকে গাড়িতে তুলে নেয়ার পরই মুখে কালো কাপড়ের মাস্ক পরিয়ে দেয়। তুলে নেয়ার ২ ঘন্টার পর আমাদেরকে পৃথক করে ফেলে। আমাকে অন্ধকার ঘরে বিভিন্ন সময় কিছু খাবারও দেয় তারা। ২০ জুলাই গভীর রাত ২টায় রামুর উপজেলা চেইন্দা এলাকায় আমাকে একটি গাড়ি থেকে নামিয়ে দেয় তারা। পরে আমি রাস্তার পাশের একটি বাড়িতে আশ্রয় নিয়ে বাড়িতে ফোন দিই। পরে রামু থানা পুলিশ আমাকে উদ্ধার করে গতকাল ২১ জুলাই খুটাখালী থেকে আসা স্বজনদের হাতে তুলে দেয়। জসিম আরও জানান- অপহৃত আনসার কমান্ডার গিয়াসকে তারা কোথায় রেখেছে, তার ভাগ্যে কি ঘটেছে আমি কিছুই জানি না। ছাড়া পাওয়া আতংকিত জসিম কথা বলার সময় সারাক্ষণ ভয়ে আচ্ছন্ন ছিল।
এদিকে প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, চকরিয়া উপজেলার খুটাখালীর ১নং ওয়ার্ডের উত্তর মেধা কচ্ছপিয়া গ্রামের মোহাম্মদ হোছনের ছেলে আনসার কমান্ডার গিয়াস উদ্দিন (২৮) এবং একই এলাকার ছাবের আহমদের ছেলে জসিম উদ্দিন (২৩) গত ১৫ জুলাই অপহৃত হয়।
একইদিন গিয়াস উদ্দিনের পিতা মোহাম্মদ হোছন বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ৪/৫ জনের বিরুদ্ধে চকরিয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। যার এসডিআর নং- ১৬৬৭/১৯। অভিযোগে জানা যায়, ঘটনার দিন দুপুর ১টার দিকে তার ছেলে আনসার কমান্ডার গিয়াস উদ্দিন ও ছাবের আহমদের ছেলে জসিম উদ্দিন একটি মোটরসাইকেল যোগে খুটাখালী বাজারে যাচ্ছিল। তারা মেধাকচ্ছপিয়া যাত্রী ছাউনি অতিক্রম করে উত্তরদিকে কিছুদূর যাওয়া মাত্রই বিপরীত দিক থেকে আসা একটি অজ্ঞাত নাম্বারের জলপাই রংয়ের বক্সীগাড়ী মোটর সাইকেলের পথরোধ করে দাঁড়ায়। তাৎক্ষণিক গাড়ী থেকে ৩/৪ জন অজ্ঞাত লোক বের হয়ে মোটরসাইকেল আরোহী দুজনকে টানাহেঁচড়া করে মোটরসাইকেল থেকে নামিয়ে ফেলে। এসময় কিছু বুঝে উঠার আগে গিয়াস উদ্দিন ও জসিম উদ্দিনকে জোরপূর্বক বক্সীগাড়ীতে তুলে নেয়। এসময় তাদের চিৎকারে পার্শ্ববর্তী লোকজন এগিয়ে আসলে বক্সীগাড়ী ও বক্সীগাড়ীতে করে আসা একজন মোটর সাইকেলটি নিয়ে দক্ষিণ দিকে দ্রুত চলে যায়।
এদিকে অপহৃতের পরিবার গত ১৬জুলাই কক্সবাজার র‍্যাব কার্যালয় ও ডিবি অফিসে অপহৃত দু’যুবকের খোঁজ নিয়েও কোনো কুলকিনারা করতে পারেনি। গিয়াস উদ্দিনের বাবা মোহাম্মদ হোছন জানান- আমার ছেলে গিয়াস দীর্ঘদিন ধরে আনসার কমান্ডারের দায়িত্ব পালন করে আসছে। আইনের লোক হয়ে কোনো বেআইনি কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকতে পারে বলে আমি বিশ্বাস করি না। নিখোঁজ আনসার কমান্ডার গিয়াসের শ্বশুর হাজী রেজাউল করিম বদন জানান, জামাই অপহরণের পর থেকে মেয়ে ও একমাত্র শিশু নাতির মুখের দিকে থাকাতে পারছি না। স্বামী এবং বাবার ফিরে আসার আশায় এখনোও বুক বেধে আছে আমার মেয়ে ও একমাত্র নাতি।

সর্বশেষ সংবাদ

দাবি মেনে নিয়ে ক্রিকেট সংকটের অবসান ঘটাল বিসিবি

অপকর্মে আ’লীগের সুনাম ভূলুন্ডিত হয় এমন নেতৃত্বের প্রয়োজন নেই : এড. সিরাজুল মোস্তফা

চকরিয়ায় অবৈধ নাচ গানের আসর গুড়িয়ে দিলেন পুলিশ

চকরিয়ায় অবৈধ মেলামেশা কালে জনতার হাতে আটক ২

ডুলাহাজারায় ইয়াবা ব্যবসায়ীকে আটক করে পুলিশে দিল জনতা

শিলার মাথায় মুকুট পরিয়ে দিলেন বলিউডের সুস্মিতা সেন

কক্সবাজারে মাধ্যমিক ও নিম্ন মাধ্যমিকে ২৪ টি বিদ্যালয় এমপিও ভুক্ত

মহেশখালী ডিগ্রি কলেজ ও কুতুবদিয়া বিএম কলেজ এমপিও ভুক্ত হলো

কক্সবাজারে ২৯ মাদ্রাসা এমপিও ভুক্ত

কক্সবাজার পৌরসভা ৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সম্মেলন ২৯ অক্টোবর

মহেশখালীর ১১ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত

কুতুবদিয়া মুজিব কিল্লা পাড়া বঙ্গবন্ধু সড়ক নির্মাণ কাজের উদ্বোধন

ঈদগাঁহ’কে থানা : এমপি কমলের উদ্যোগে শোকরানা সভা ও মেজবান নভেম্বরে

ইসলামের বিরুদ্ধে কটূক্তিকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি দিন : লুৎফুর রহমান কাজল

কক্সবাজার সদর থানা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার- ১১

খরুলিয়ায় জমি দখলের চেষ্টা, রাত জেগে পাহারা নারীদের

মওলানার কাঁধে পুরোহিতের ঘুমানোর ছবি ফেসবুকে ভাইরাল

গোমাতলী জরাজীর্ণ ব্রীজ পরিদর্শনে উপজেলা চেয়ারম্যান জুয়েল

চারদিকে সহিংসতা ছড়াচ্ছে কেন?

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চ.বি স্টুডেন্ট এসোসিয়েশন আহবায়ক কমিটি গঠিত